মস্তিষ্কে কীভাবে যুক্ত হবে যন্ত্র

Print

চমক জাগানিয়া উদ্ভাবনের জন্য বিখ্যাত এলন মাস্ক। মাঝে মাঝেই তিনি এমন সব উদ্ভাবনী ভাবনা নিয়ে হাজির হন, যা শুনে সাধারণের চোখ কপালে ওঠে। এবার এমনই একটি নতুন প্রকল্পের ঘোষণা দিয়েছেন এলন মাস্ক। মানুষের মস্তিষ্কের সঙ্গে যন্ত্রের সংযোগ ঘটানোর অভিযানে নেমেছে তাঁর প্রতিষ্ঠান।

মস্তিষ্ক ও যন্ত্রের সংযোগ স্থাপনের ব্যাপারে নতুন ধারণার কথা শুনিয়েছেন মাস্ক। চলতি মাসের মাঝামাঝি সর্বসমক্ষে এর বিস্তারিতও জানিয়েছেন তিনি। ব্রিটিশ সাময়িকী দ্য ইকোনমিস্টের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মস্তিষ্ক ও যন্ত্রের মধ্যে নতুন ধরনের এ সংযোগ স্থাপনের ব্যাপারে নেতৃত্ব দিচ্ছে মাস্কের প্রতিষ্ঠিত কোম্পানি ‘নিউরালিংক’। যন্ত্রের সঙ্গে মস্তিষ্কের সংযোগ স্থাপনের প্রচেষ্টা অনেক দিন ধরেই করে আসছেন বিজ্ঞানীরা। কিছুটা অগ্রসরও হয়েছেন তাঁরা। যেমন পারকিনসন্স রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের চিকিৎসার জন্য নিউরোসার্জনরা রোগীর মস্তিষ্কে কিছু ইলেকট্রোড স্থাপন করেন। ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানীদের একটি দল একটি ‘ব্রেন টু ব্রেন নেটওয়ার্ক’ গড়ে তুলেছেন, যার সাহায্যে কেবল নিজেদের চিন্তাকে কাজে লাগিয়েই ভিডিও গেম খেলতে পারবে মানুষ। ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক কথা বলার সময় মানুষের মস্তিষ্ক থেকে স্নায়বিক সংকেত রেকর্ড করতে সক্ষম হয়েছেন। পরবর্তী সময়ে ওই সংকেতকে তথ্যে রূপ দিয়ে কম্পিউটারের মাধ্যমে বুদ্ধিবৃত্তিক বক্তব্যেও পরিণত করেছেন তাঁরা।

তবে নিউরালিংক কেবল এটুকুতেই সীমাবদ্ধ থাকতে চাইছে না। প্রতিষ্ঠানটির আকাঙ্ক্ষা আরও বেশি। মস্তিষ্ক ও যন্ত্রের উন্নত সংযোগ স্থাপনের পাশাপাশি একটি ‘নিউরাল লেস’ বা ‘স্নায়বিক ফিতা’ও তৈরি করতে চাইছে তারা। অত্যন্ত সরু ইলেকট্রোডের সমন্বয়ে গঠিত এই নিউরাল লেস মস্তিষ্ক থেকে আরও বেশি তথ্য জোগাড় করতে পারবে। তবে এই নিউরাল লেস স্থাপন করার প্রক্রিয়াটি এত সহজ নয়। ইলেকট্রোডগুলোকে অবশ্যই নমনীয় হতে হবে, যাতে করে মস্তিষ্কের টিস্যুর কোনো ক্ষতি না হয়। ইলেকট্রোডগুলো যেন দীর্ঘমেয়াদি হয়, সেটিও নিশ্চিত করতে হবে। প্রয়োজনীয় ব্যান্ডউইথ সরবরাহের জন্য অন্তত কয়েক হাজার এমন ইলেকট্রোড মস্তিষ্কে স্থাপন করতে হবে। এতগুলো ইলেকট্রোড মস্তিষ্কে বসানোর প্রক্রিয়াটিকে নিরাপদ, ব্যথাবিহীন ও কার্যকর করতে হবে। সব মিলিয়ে সে এক বিরাট কর্মযজ্ঞ!

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 30 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com