মাথা কাটার গুজব, নড়াইলে ধরা ‘আইটি বিশেষজ্ঞ’

Print

পদ্মাসেতু তৈরির জন্য এক লাখ মানুষের মাথা সংগ্রহের গুজব ছড়িয়ে এবার নড়াইলে ধরা পড়লেন একজন ‘তথ্য প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ’। তিনি একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। কী উদ্দেশ্য নিয়ে তিনি এটা ছড়িয়েছেন, তা এখনো স্পষ্ট নয়।

আটক শহিদুল ইসলাম সোহেলকে র‌্যাব আটক করেছে নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার মাকড়াইল গ্রাম থেকে। শুক্রবার সকালে তার বিরুদ্ধে লোহাগড়া থানায় বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় র‌্যাব-৬ এর এএসপি শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে একটি দল সোহেলকে তার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে আসে।

র‌্যবা জানায়, পদ্মা সেতু নির্মাণে মানুষের মাথা লাগবে বলে ভিডিও নির্মাণ করে দুটি ইউটিউব চ্যানেলে প্রচার করেছেন সোহেল। তিনি যশোর শহরের শিশু হাসপাতাল এলাকায় একটি আইটি অফিসে কাজ করেন। তার কাছ থেকে একটি করে মোবাইল ফোন, ল্যাপটপ, ট্যাব, কম্পিউটার ও যন্ত্রাংশ জব্দ করা হয়েছে।

সোহেলের বাবা খসরুজ্জামান এ বিষয়ে বলেন, ‘আমি কৃষি কাজ করি; ইন্টারনেটের তেমন কিছু বুঝি না। শুনেছি আমার ছেলে সোহেল কম্পিউটার ও ইন্টারনেটের মাধ্যমে পদ্মা সেতু নিয়ে কী সব গুজব ছড়িয়েছে।’

লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোকাররম হোসেন বলেন, ‘পদ্মা সেতু নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচার ও গুজব ছড়ানোর অভিযোগে শহিদুল ইসলাম সোহেলকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে।’

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 68 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com