মাদ্রাসায় যৌন হয়রানি, মুখ খুলছেন সাবেক ছাত্ররা

Print

মাদ্রাসাছাত্রের যৌন নির্যাতন নিয়ে এএফপির সঙ্গে কথা বলেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র হোজাফিয়া আল মামুদ

সামাজিক মাধ্যমে যৌন হয়রানির শিকার মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা নিজেদের অভিজ্ঞতা প্রকাশ করছেন। বাংলাদেশের সমাজ রক্ষণশীল হওয়ায় মাদ্রাসায় যৌন হয়রানির ঘটনা প্রকাশ অনেকটাই ট্যাবু হিসেবে বিবেচিত। কিন্তু এই ট্যাবুকে উপেক্ষা করেই ঘটনার শিকার শিক্ষার্থীরা নিজেদের অভিজ্ঞতা প্রকাশ করছে।

২৯ আগস্ট এএফপির একটি প্রতিবেদনে এ দাবি করা হয়। জুলাই মাসে অন্তত পাঁচ জন মাদ্রাসা শিক্ষককে যৌন হয়রানির ঘটনায় পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে।

ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ-দৌলার বিরুদ্ধে মাদ্রাসা শিক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফি যৌন হয়রানির অভিযোগ তোলে। এ ঘটনায় প্রথমবারের মতো দেশে মাদ্রাসায় যৌন হয়রানি সম্পর্কে বিতর্কের সৃষ্টি হয়। সামাজিক মাধ্যমসহ সর্বত্র ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও দোষীদের শাস্তি নিশ্চিতের দাবি তোলা হয়।

বাংলাদেশের মাদ্রাসাগুলোতে আর্থিকভাবে অস্বচ্ছল এবং গ্রামের ছেলে-মেয়েরা বেশি পড়াশোনা করে। সাধারণ স্কুল-কলেজগুলোতে পড়াশোনার ব্যয় মাদ্রাসা থেকে অনেক বেশি।

বাংলাদেশের অধিকাংশ মানুষ ইসলাম ধর্মাবলম্বী হওয়ার কারণে মাদ্রাসাগুলোতে যৌন হয়রানির ঘটনা আড়ালেই রয়ে যায়। কারণ, প্রায় দশ হাজার মাদ্রাসার প্রতি ধর্মপ্রাণ মানুষের শ্রদ্ধা রয়েছে। এ কারণে কেউ মাদ্রাসাগুলোর বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলতে ভয় পায়। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার আশঙ্কা করে, যৌন হয়রানির ঘটনা প্রকাশ হলে মাদ্রাসার প্রতি নেতিবাচক ধারণা তৈরি হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী হোজাফিয়া আল মামুদ। তিনি তিনটি মাদ্রাসায় পড়াশোনা করেছেন। এএফপিকে তিনি বলেন,‘মাদ্রাসায় যৌন হয়রানির ঘটনা অনেক বেশি। মাদ্রাসায় পড়াশোনা করা প্রত্যেক শিক্ষার্থী যৌন হয়রানির ঘটনা সম্পর্কে অবগত। অনেক শিক্ষক নারীদের সঙ্গে ব্যাভিচারের পরিবর্তে শিশুদের সঙ্গে সেক্সকে অপেক্ষাকৃত কম অপরাধ মনে করে।’

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 23 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com