মানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে বিশ্ব শিক্ষক দিবস উপলক্ষে সেমিনার অনুষ্ঠিত

Print

আসমাউল মুত্তাকিন (বিশ্ববিদ্যালয়  প্রতিনিধি)
৫ ই অক্টোবর বিশ্ব শিক্ষক দিবস।সারা বিশ্বের ন্যায় রাজধানীর অন্যতম বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় মানারাত ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে “বিশ্ব শিক্ষক দিবস” উপলক্ষে এক শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়ে গেল।

শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়টির আশুলিয়ার স্থায়ী ক্যাম্পাসে জার্নালিজম অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের উদ্যোগে সকাল ১১টায় এই সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।সেমিনারে প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল “শিক্ষা ও সময়ের শিক্ষকেরা।”

জার্নালিজম এন্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের প্রভাষক মামুন উদ্দিনের সভাপতিত্বে  প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার ও ভারপ্রাপ্ত ভাইস চ্যান্সেলর হাফিজুল ইসলাম মিয়া।বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক  ভূতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ও মানারাতের ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য এ টি এম ফজলুল হক।এছাড়া উপস্থিত ছিলেন স্কুল অফ ইঞ্জিনিয়ারিং সাইন্স এন্ড টেকনোলজির ডিন ড মোহাম্মদ  কোরবান আলী, জার্নালিজম এন্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক রফিকুজজমান রুমান,প্রভাষক বোরহান উদ্দিন, প্রভাষক আবু সুফিয়ান,প্রভাষক রেহানা সুলতানা,অতিথি শিক্ষক হাসানুল বারী,আইন বিভাগের প্রধান ও অধ্যাপক জিয়া রহমান মুন্সী,আইন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আবদুল্লাহহিল গনী,ও  ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক নাজমুল হক শিবলু এবং ডিপামেন্ট এডমিন জাফর ইকবাল।

এ সময় প্রধান অতিথি হাফিজুল ইসলাম মিয়া বলেন
“একজন মানুষের সফতার পেছনে শিক্ষকের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। একজন আদর্শ শিক্ষক কেবলমাত্র পড়াশোনার ক্ষেত্রে নয়, তিনি ছাত্রকে জীবনে চলার পথে পরামর্শ দেবেন, ব্যর্থতায় পাশে দাঁড়িয়ে উৎসাহ দেবেন, সাফল্যের দিনে নতুন লক্ষ্য স্থির করে দেবেন। তিনি তাকে শুধুমাত্র জীবনে সফল হওয়া নয়, কিভাবে একজন ভাল মানুষ হতে হয় শেখাবেন।”

বিশেষ অতিথি এটিএম ফজলুল হক বলেন “শিক্ষক যে কেবল শিক্ষার লক্ষ্য পূরণের হাতিয়ার নন, বরঞ্চ জ্ঞান, মূল্যবোধ এবং নীতির উপর ভিত্তি করে সমাজ এবং শিক্ষার টেকসই জাতীয় ভিত গড়ে তোলার চাবিকাঠি, এটি এখন সর্বজনগৃহীত সত্য।আমাদের শিক্ষকদের সেই প্রচেষ্ঠায় কাজ করতে হবে।”

উপস্থিত শিক্ষার্থীদের প্রশ্নের জবাবে অধ্যাপক রফিকুজজামান রুমান বলেন- ” শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড হলে জাতির প্রাণ কী? জাতির প্রাণ হলো এই মূল্যবোধ। নৈতিকতা। মূল্যবোধ ছাড়া, নৈতিকতার যথার্থ অনুশীলন ছাড়া একটি জাতি কখনো মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারে না। শিক্ষক মূল্যবোধ বিনির্মাণের আদর্শ কারিগর।
এখনো এমন শিক্ষক আছেন, যিনি শিক্ষার্থীর হৃদয় ছুঁয়ে যান। এমন শিক্ষক এখনো আছেন, যিনি বই দিয়ে নয়; হৃদয় দিয়ে পড়ান। যিনি পড়েন, পড়ান এবং স্বপ্ন দেখান। এমন শিক্ষক নিশ্চয়ই আছেন, শিক্ষার্থীরা যার মতো হয়ে উঠতে চায়! মনের অজান্তে শিক্ষকই হয়ে ওঠেন তার রোল মডেল। শিক্ষার্থীর সাফল্যে শিক্ষক গর্বিত হন। এমন শিক্ষকই আমাদের দরকার, যিনি জ্ঞানচর্চায়, আত্মসম্মানবোধে, সততায়, নৈতিকতায় ছাপিয়ে যাবেন সবাইকে। “

দুপুর ২ টায়  প্রভাষক বোরহান উদ্দীনের সঞ্চচালনায় সেমিনারটি শেষ হয়।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 51 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com