মালয়েশিয়া দুবাইসহ একের পর এক শ্রমবাজার বন্ধ

Print

বাংলাদেশের অন্যতম শ্রমবাজার সংযুক্ত আরব আমিরাত। এ বাজারটি সাত বছর ধরেই বন্ধ হয়ে আছে। অনেক চেষ্টা তদবির করার পরও আজ পর্যন্ত দেশটিতে শ্রমিক (পুরুষ) পাঠানো শুরু করতে পারেনি প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়। শুধু সংযুক্ত আরব আমিরাতই নয়, একইভাবে বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম শ্রমবাজার মালয়েশিয়া ও বাহরাইনের মার্কেটও বন্ধ হয়ে রয়েছে। মালদ্বীপ সরকার তার দেশে এক বছরের জন্য বাংলাদেশ থেকে কর্মী না নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। নতুন করে মধ্যপ্রাচ্যের তেলসমৃদ্ধ ধনী দেশ কাতার সরকারও কিছু দিন ধরে বাংলাদেশী কর্মীদের নামে ভিসা ইস্যু করছে না। যেকোনো সময় কাতারের শ্রমবাজারটিও হাতছাড়া হওয়ার আশঙ্কা সংশ্লিষ্টদের।

একের পর এক শ্রমবাজার বন্ধ হয়ে যাওয়ায় এর প্রভাব পড়তে শুরু করেছে জনশক্তি রফতানি সেক্টরে। তবে নতুন করে জাপানে বাংলাদেশী শ্রমিক যাওয়ার একটা সম্ভাবনা তৈরি হওয়ায় কিছুটা চাঙ্গাভাব দেখা দিয়েছে রিক্রুটিং এজেন্সিগুলোর মধ্যে। তবে যেভাবে একেকটি দেশের শ্রমবাজার নিয়ন্ত্রণে নিতে সিন্ডিকেট গড়ে উঠছে, তাতে জনশক্তি রফতানি ব্যবসায় সম্পৃক্তরা রীতিমতো শঙ্কিত।

জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর পরিসংখ্যান ঘেঁটে দেখা যায়, চলতি বছর জানুয়ারি থেকে আগস্ট মাস পর্যন্ত বিশ্বের বিভিন্ন দেশে শ্রমিক গেছেন চার লাখ ১৭ হাজার ৮৪ জন। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৪৪ হাজার ৭১৩ জন শ্রমিক গেছেন সৌদি আরবে। এরপরের অবস্থানে আছে জর্ডান। দেশটিতে গেছেন ১২ হাজার ১২৩ জন। ওমানে গেছেন সাত হাজার ৯২৭ জন। আর কাতারে এ সময়ের মধ্যে গেছেন দুই হাজার ৫২৩ জন। তবে আট মাসে বিদেশে যত জনশক্তি রফতানি হয়েছে, তার মধ্যে ৭১ হাজার ৯৪৫ জন নারী শ্রমিক পাড়ি জমিয়েছেন। পরিসংখ্যানে দেখা যায়, চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে ৫৯ হাজার ৩৭ জন শ্রমিক বিদেশে গেছেন। মার্চ মাস পর্যন্ত এই ধারা অব্যাহত থাকে। এপ্রিল ও মে মাসে বেড়ে আগের অবস্থায় ফিরে আসে। কিন্তু জুন মাসে সেটি আবার কমে যায়। জুলাই মাসে বেড়ে ৫২ হাজার ৫৮ জনে দাঁড়ায়। কিন্তু এক মাসের ব্যবধানে অর্থাৎ আগস্ট মাসে সেটি কমে ৩২ হাজার ২৭২ জনে এসে ঠেকে। মানে জুলাই থেকে আগস্ট- এক মাসের ব্যবধানে ২০ হাজার শ্রমিক বিদেশে কম রফতানি হয়। অথচ দুই বছর আগেও বাংলাদেশ থেকে এক বছরে সর্বোচ্চ ১০ লাখ শ্রমিক বিদেশে পাড়ি জমিয়েছিল। আর সেই ধারা থেকে বেরিয়ে এখন শ্রমিক যাওয়ার হার কমতে কমতে জনশক্তি রফতানি গড়ে প্রায় অর্ধেকে নেমে এসেছে বলে পরিসংখ্যানে দেখা যায়।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 77 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com