মিরসরাইয়ে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে আহত, অস্ত্র উদ্ধার

Print

মিরসরাই প্রতিনিধি::
মিরসরাই উপজেলার মিঠানালা ইউনিয়নের রহমতাবাদ গ্রামে হানিফ নামে এক ব্যক্তিকে মারধর ও কুপিয়ে আহত করা হয়েছে। অভিযোগ রয়েছে নিজের স্ত্রীর সাথে পারিবারিক কলহের কারনে শশুর পক্ষ ভাড়াটে সন্ত্রাসী দিয়ে হানিফকে মেরে আহত করে। আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। শনিবার (০৭ এপ্রিল) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রহমতাবাদের বশর মেম্বারের পোলের গোড়া নামক স্থানে মৃত ওবায়দুল্লাহর ছেলে হানিফের বাড়ি। কয়েকমাস আগে চাকুরী চলে গেলে সে বাড়িতে বেকার বসে থাকে। এ নিয়ে স্ত্রীর সাথে হানিফের প্রায় বাক বিতন্ডা লেগেই থাকে। গত শুক্রবার (৬ এপ্রিল) রাতে হানিফ তার স্ত্রীকে মারধর করে। বিষয়টি হানিফের শশুর পক্ষ জানার পর তাকে মারার জন্য নোমানগংকে ভাড়াটিয়া হিসাবে ধরায়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে হানিফের বাড়িতে স্থানীয় আবু নোমানের নেতৃত্বে মোসলেম, শাহীন, শাহদাত, জাহেদসহ বেশ কয়েকজন হামলা চালায়। তারা হানিফকে মারতে থাকলে হানিফ প্রাণ ভয়ে তাদের পুরাতন বাড়ির নূরছাফার পাকা ভবনের ছাদে গিয়ে আশ্রয় নেয়। এক পর্যায়ে নোমানসহ তার সংগী সাথীরা হানিফকে সেখানে গিয়েও মারধর এবং কুপিয়ে আহত করে। এসময় হানিফ মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। হানিফের শরীরের অবস্থা অবনতি হলে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
ঘটনার পরে পুলিশ তনন্তে গেলে হানিফের চাচাতো শ্যালক মাহফুজ একটি দেশীয় অস্ত্র (এলজি) পুলিশকে দিয়ে জানায় অস্ত্রটি হানিফের। স্থানীয়রা অভিযোগ করে হানিফের শরীরের অবস্থা ভালো নয়। সে বাাঁচে কী না সন্দেহ। তাই পুরো বিষয়টিকে অন্য দিকে মোড় ঘুরাতে অস্ত্রের বিষয়টি সাজানো হয়েছে। এসময় মিঠানালা ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জসিম উদ্দীন উপস্থিত ছিলেন। জসিম উদ্দীনও হানিফের স্ত্রীদের আত্মীয় বলে জানা গেছে। পরে পুলিশ মাহফুজ আর জসিমকেও থানায় নিয়ে যায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য।
হনিফের আহত হওয়া, অস্ত্র উদ্ধারের বিষয়টি স্বীকার করে মিরসরাই থানার ওসি সাইরুল ইসলাম জানান, পুলিশ অস্ত্রটি উদ্ধার করেছে। মাহফুজ ও জসীমকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 88 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com