যেভাবে গড়ে ওঠে দুর্ধর্ষ কিশোর অপরাধী দল

Print

তানিম আহমেদ (ছদ্মনাম) একসময় একটি কিশোর গ্যাংয়ের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। বছর কয়েক আগে নিজ এলাকায় সমবয়সী কিশোরদের নিয়ে কিশোর গ্যাংটি নিজেই গড়ে তুলেছিলেন।

তিনি বলেন, ‘শুরুতে মূলত অন্যদের হামলা থেকে নিজেদের প্রটেক্ট করার জন্যই আমরা কয়েকজন বন্ধু একত্র হই। পরে বেশ বড় একটি গ্যাং তৈরি হয় আমাদের।’

‘পরে আমরা দেখলাম, এটি একটি ট্রেন্ড। সবাই গুন্ডামি করছে, গ্যাং বানাচ্ছে, দেয়ালে দেয়ালে স্প্রে দিয়ে গ্যাংয়ের নাম লিখছে। তখন আমরাও শুরু করলাম। ৫/৬টি গাড়ি নিয়ে একসঙ্গে মুভ করতাম। একসময় বেশ বড় একটি গ্যাং তৈরি হয় আমাদের।’ তবে গ্যাং তৈরি হওয়ার পর খুব দ্রম্নতই অন্য এলাকার গ্রম্নপগুলোর সঙ্গে সংঘাত শুরু হয় বলে জানান তামিম আহমেদ।

তিনি বলেন, অনেক সময় তুচ্ছ কারণেও ঘটত মারামারির ঘটনা। এক এলাকার ছেলে অন্য এলাকায় গেলে মারধরের ঘটনা ঘটত।

কাউকে গালি দিলে, যথাযথ সম্মান না দেখালে, এমনকি বাঁকা চোখে তাকানোর কারণেও মারামারির ঘটনা ঘটেছে। মেয়েলি বিষয় এবং সিনিয়র-জুনিয়র দ্বন্দ্ব থেকেও অসংখ্য মারামারি হয়েছে।

‘আমাদের গ্যাংয়ে একসময় কয়েকটি আর্মস ক্যারি (অস্ত্র বহন) করা শুরু করি আমরা। এসব দিয়ে মাঝে মধ্যে ফাঁকা ফায়ারিং করা হতো। তবে আমরা কাউকে গুলি করিনি কখনো।’ অস্ত্র আসার কিছুদিনের মধ্যেই তানিমদের গ্রম্নপে মাদকও ঢুকে পড়ে।

‘আমাদের গ্যাংয়ের কয়েকজনের মধ্যে একসময় লোভ চলে আসে। গ্রম্নপটাকে কাজে লাগিয়ে টাকা আদায়ের ধান্দা শুরু করে কেউ কেউ। এক পর্যায়ে ছিনতাইও শুরু হয়। আর মাদক নেয়া তো ভয়াবহ পর্যায়ে চলে যায়। দু-একজন বিভিন্ন অপরাধে জেলও খেটেছে, মারাও গেছে।’

ফলে নিজেকে রক্ষায় নিজের তৈরি গ্যাং থেকে একসময় নিজেই বেরিয়ে আসেন বলে দাবি করেন তানিম আহমেদ। ঢাকা শহরের বিভিন্ন এলাকায় দেয়ালে দেয়ালে অনেক কিশোর গ্যাংয়ের নাম লেখা গ্রাফিতি চোখে পড়বে।

ধানমন্ডি লেকের পাশে কয়েকটি সড়কে ঘুরেই আমি এরকম অন্তত ১৫টি কিশোর গ্যাংয়ের নাম দেখতে পেয়েছি।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 46 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com