যে কারণে বৈচিত্র্য হারাচ্ছে টিভি নাটক

Print

বৈচিত্র্য হারাচ্ছে এ সময়ের টিভি নাটক। গৎবাঁধা গল্প, বেশিরভাগ নাটকে একই লোকেশন ব্যবহার ও ঘুরে ফিরে নির্দিষ্ট কয়েকজন তারকার উপস্থিতি দর্শকদের বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এখনকার নাটকের গল্প মানেই নায়ক-নায়িকার প্রেম, মাঝে দুজনের কিছুটা দূরত্ব। গল্পের শেষে তাদের দুজনের আবার মিলন। গল্পে বাবা-মা, কিংবা অন্য চরিত্রগুলোর উপস্থিতি কোনো কোনো নাটকে এক ঝলক দেখা যায়। আবার কোনো নাটকে সেসবের কোনো কিছুই থাকে না। অনেকেই বলেন, পারিবারিক আবহ আমাদের নাটক থেকে হারিয়ে যাচ্ছে।

একইসঙ্গে হারাচ্ছে গ্রামীণ পটভূমির নাটক। বছরে যে ক’টি এ ধরনের নাটক হচ্ছে সেগুলোতেও গ্রামীণ দৃশ্যের অভাব থাকে। গেল কয়েক বছর ধরে গ্রামীণ নাটক মানেই গাজীপুরের হোতাপাড়া ও পূবাইলের ভাদুন। এই লোকেশনের বাইরে গ্রামীণ নাটকের অন্য কোথাও তেমন শুটিং করা হয় না। উত্তরার শুটিং হাউজগুলো নিয়েও আছে নানা অভিযোগ। একাধিক নাটকে দেখা যায় একই খাট, সোফা, চেয়ার, টেবিল জানালার পর্দা ব্যবহার করা হচ্ছে। তবে নির্মাতারা এজন্য শুটিং হাউজের মালিকদের দায়ী করছেন। আবার নির্মাতারাও শহরের নাটক মানেই বোঝেন উত্তরার শুটিং হাউজগুলো।

পাশাপাশি দিয়া বাড়ি ও তার আশপাশের লোকেশন। দর্শক বরাবরই নতুনত্ব ও বৈচিত্র্য খোঁজে। কিন্তু এসবের অভাবে বেশিরভাগ নাটকই হয়ে যায় একঘেয়েমিপূর্ণ। আর সে কারণে দর্শক মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে নাটক থেকে। এ প্রসঙ্গে অভিনেতা-নির্মাতা শহিদুজ্জামান সেলিম বলেন, পরিবর্তন সব কিছুতে আসবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু আমাদের পরিবর্তনটা একটু অন্য রকম হয়ে গেছে। আমরা আমাদের মূল জায়গা থেকে সরে আসছি।

আমাদের নাটকের একটা ঐতিহ্য আছে। ওপার বাংলাতেও আমাদের দেশের নাটকের দারুণ চাহিদা। অথচ এখন আমাদের দর্শক উল্টো তাদের নাটক দেখছে। আমাদের মধ্য থেকে সৃজনশীলতা হারিয়ে যাচ্ছে। আমাদের চিন্তা ভাবনার পরিসর বাড়াতে হবে। গতানুগতিক কয়েকটি বিষয় নিয়ে পড়ে থাকলে সামনে যাওয়া কখনো সম্ভব হবে না। নির্মাতাদের ভালো স্ক্রিপ্ট রাইটারের কাছ থেকে গল্প নিতে হবে, সাহিত্য নির্ভর নাটক নির্মাণের জন্য এগিয়ে আসতে হবে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 30 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com