রাতের আঁধারে গোলাপ বাগান উজার, কৃষকের মাথায় হাত

Print

 

খোরশেদ আলম, ঢাকা, জেলা  প্রতিনিধি:
সাভারে রাতের আঁধারে ৪৫ শতাংশ জমিতে ইজারা নিয়ে লাগানো এক কৃষকের গোলাপ ও সব্জির বাগান কেটে ফেলেছে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা। পরে পেট্রোল ঢেলে কাটা গাছগুলো পুড়িয়ে ফেলার চেষ্টাও করে তারা। এঘটনায় স্থানীয় মোঃ লিয়াকত আলী, কুতুব উদ্দিন সজিব ও উত্তমসহ ২০-২৫ জনের বিরুদ্ধে সাভার মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী কৃষক আম্বর আলী। গত রবিবার ভোররাতে উপজেলার বিরুলিয়া ইউনিয়নের বাগ্নিবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
ভুক্তভোগী কৃষক আম্বর আলী জানান, দীর্ঘ্য ২০ বছর ধরে স্থানীয় এবাদত শিকদার ও তার স্বজনদের কাছ থেকে বাৎসরিক ২০ হাজার টাকায় ৪৫ শতাংশ জমি পত্তন নিয়ে গোলাপ বাগান করছি। রবিবার রাত তিনটার দিকে আমি ফুল নিয়ে রাজধানীর শাহাবাগে গেলে স্থানীয় মাদকসেবী মোঃ লিয়াকত আলী, কুতুব উদ্দিন সজিব ও উত্তমসহ ২০-২৫ জনের একদল অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী আমার বাগানের সমস্ত গাছ কেঁটে ফেলে এবং পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ফেলার চেষ্টা করেন।
তিনি আরও বলেন, প্রতিবছর গোলাপ বাগানে ৩০ লক্ষ টাকার ফুল বিক্রী করা হয়। তাতে সব খরচ বাদ দিয়ে আমার ১০ লক্ষ টাকা লাভ হয়। কেটে ফেলা বাগানটি নতুন করে করতে গেলে প্রায় ১০ লক্ষ টাকা দরকার। এছাড়া বাগানটি বর্তমান অবস্থায় আসতে দুই বছর সময় লাগবে যেখানে আমার আরও ২০ লাখ টাকার আয় হতো। সবমিলিয়ে বাগানটিতে আমার ত্রিশ লাখার ক্ষতি হওয়ায় এখন আমার পথে বসা ছাড়া কোন উপায় নেই।
বাগানে কর্মরত শ্রমিক আব্দুল মতিন বলেন, আমি প্রতিমাসে বাগানটিতে ১৫ হাজার টাকা বেতনে কাজ করে পরিবার নিয়ে বসবাস করি। এখনটি বাগানটি সন্ত্রাসীরা কেটে ফেলায় আমার মাথায় হাত পড়েছে। কোথায় নতুন করে কাজ করবো এবং কে কাজ দিবে তা ভাবতেই কান্না পাচ্ছে।
স্থানীয় জাকির হোসেন বলেন, জমির মালিকের ছেলে জাহাঙ্গীর কাকা আমাকে রবিবার ভোরে ফোন করে বলে আমাদের পত্তন দেয়া গোলাপ বাগানটি কারা যেনে কেটে ফেলছে তুমি গিয়ে একটু দেখ। আমি তার কথামতো বাগানে এসে দেখি উনাদের আত্মীয় মোঃ লিয়াকত আলী ও তার স্ত্রী, কুতুব উদ্দিন সজিব ও উত্তমসহ অনেক লোকজন ধারালো অস্ত্র দিয়ে পুরো বাগানটি কেটে ফেলেছে।
এবিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত লিয়াকত আলী বাগান কাটার বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, জমিটি ওয়ারিশ সুত্রে মালিকানা দাবিকারীর নির্দেশে এবং উপস্থিতিতেই বাগানটি কাটা হয়েছে।
অপর অভিযুক্ত কুতুব উদ্দিন সজিব বলেন, আমাদের জমি নিয়ে আদালতে মামলা চলছে। কিন্তু আদালত দখলের গুরুত্ব দেখে মামলার রায় দেয় বিধায় জমিটি দখলে নেয়ার জন্য বাগান উপড়ে ফেলা হয়েছে। জমি নিয়ে মামলা আছে কিন্তু বাগানতো পত্তন নিয়ে চাষ করছে কৃষক এখন তার ক্ষতিপূরন কে দেবে জানতে চাইলে তিনি কোন উত্তর না দিয়ে মোবাইলের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়।
এবিষয়ে জমির পত্তনদার মালিক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, জমিটি আমার দাদা বাবাকে দান করে গেছেন এবং বর্তমান বিএস রেকর্ড ও দখল সবই আমাদের। কিন্তু হঠাৎ করে জমির মালিকানা দাবী করে সন্ত্রাসী কায়দায় রাতের আঁধারে জমিতে পত্তন নেয়া কৃষকের ফুল বাগান কেটে উজার করা আইনগত, সামাজিক ও ধর্মীয়ভাবেও অন্যায় কাজ। আমি এই ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত ও যথাযথ বিচার দাবি করি।
সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আজগর আলী বলেন, গোলাপ বাগান কেটে ফেলার বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 23 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com