রেলপথে সক্রিয় চোরাকারবারিরা

Print

রেলপথে মাদক চোরাচালান বন্ধে অভিযান চলছে। তবে এই অপরাধ বন্ধে যে আধুনিক সরঞ্জাম দরকার তা সংশ্লিষ্টদের কাছে নেই। এ কারণে অভিযানের অধিকাংশ ক্ষেত্রেই সফলতা মিলছে না। রেলে প্রতিদিন প্রায় সাড়ে ৪ লাখ যাত্রী চলাচল করেন।

চোরাকারবারিরা যাত্রী সেজে শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গে লুকিয়ে মাদক পাচার করছে। বছরের পর বছর এভাবে চললেও ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকছে তারা। অপরাধীদের ধরতে প্রতিটি স্টেশনের প্রবেশ ও বহির্গমন পথে বডি এবং লাগেজ স্ক্যানার বসানোর দাবি প্রায় দুই যুগের। কিন্তু এখন পর্যন্ত তা কোথাও বসেনি। ঢিলেঢালা নিরাপত্তা ব্যবস্থার কারণে ট্রেনগুলোতে নেশাখোরদের উৎপাতও বেড়েছে।

জানতে চাইলে রেলওয়ে রেঞ্জের অতিরিক্ত আইজিপি মো. মহসিন হোসেন বলেন, রেলপথে মাদক পাচার এখনও পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনা যায়নি। রেলপথে হাজার হাজার যাত্রীর বিপরীতে যে সংখ্যক পুলিশ সদস্য বা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য থাকা প্রয়োজন তা নেই। যাত্রীবেশী চোরাকারবারিদের ধরতে প্রতিটি স্টেশনে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা জরুরি। স্টেশনগুলোতে বডি-লাগেজ স্ক্যানার বসানোর জন্য বহু বছর ধরেই সংশ্লিষ্টদের বলা হচ্ছে। কমলাপুর ও বিমানবন্দর স্টেশনে এই যন্ত্র বসানো খুবই প্রয়োজন। পাশাপাশি দরকার পর্যাপ্ত লোকবল। কিন্তু তা হচ্ছে না।

জানা যায়, স্বাধীনতার পর থেকেই রেলপথে মাদক পাচার হয়ে আসছে। নব্বইয়ের দশকের পর আগ্নেয়াস্ত্র, ফেনসিডিল, গাঁজা, নেশার ইনজেকশনসহ বিভিন্ন প্রকার মাদকদ্রব্য পাচারের নিরাপদ রুট হয়ে ওঠে রেলপথ। চোরাকারবারি চক্রের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এসব শিক্ষার্থী ও চোরাকারবারিরা ধর্মীয় পুস্তুক, ফলমূল, আসবাবপত্র, খেলনা সামগ্রীর ভেতর ইয়াবা-হেরোইন রেখে পাচার করছে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 26 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com