রোহিঙ্গা সমাবেশের নেপথ্যে ২ এনজিও

Print

টেকনাফে রোহিঙ্গাদের বিশাল সমাবেশের পেছনে দুই এনজিওর সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে। এগুলো হল- কানাডাভিত্তিক সংগঠন এডরা এবং দেশীয় প্রতিষ্ঠান আল মারকাজুল ইসলাম। সার্বিক আয়োজনে কাজ করেছে রোহিঙ্গাভিত্তিক তিনটি সংগঠন ও বিভিন্ন পেশার ৭ ব্যক্তি।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসনের তদন্ত প্রতিবেদনে বিষয়টি উঠে এসেছে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য এনজিও ব্যুরোতে প্রতিবেদনটি পাঠানো হয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে দুই এনজিওর কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে ব্যুরো।

মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর নির্যাতনে দেশ ছাড়ার ২ বছর উপলক্ষে ২৫ আগস্ট উখিয়ায় লক্ষাধিক লোক নিয়ে সমাবেশ করে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গারা। সমাবেশের লোক সংখ্যা দেখে বিষয়টি সরকারের নজরে আসে। ঘটনার নেপথ্যে এনজিওদের সন্দেহ করা হয়।

পরে বিষয়টি তদন্তের জন্য কক্সবাজার জেলা প্রশাসন এবং শরণার্থী, ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন বিষয়ক কমিশনারকে দায়িত্ব দেয়া হয়। ইতিমধ্যে তাদের তদন্ত রিপোর্ট সরকারের হাতে এসেছে। এর আগে জড়িতদের ব্যাপারে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে, এ সংক্রান্ত হুশিয়ারি দিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আবদুল মোমেনসহ সরকারের সংশ্লিষ্টরা।

জানতে চাইলে এনজিও বিষয়ক ব্যুরোর মহাপরিচালক কেএম আবদুস সালাম বুধবার বলেন, প্রতিবেদন পেয়েছি। ইতিমধ্যে দুটি এনজিওর কার্যক্রম বন্ধ করা হয়েছে। তাদের শোকজ (কারণ দর্শানোর নোটিশ) করা হয়েছে। এ শোকজের জবাব এলে আইন অনুসারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সরকারের তদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, সমাবেশের জন্য বেশ কয়েকদিন আগে প্রস্তুতি নেয়া হয়। এক্ষেত্রে রোহিঙ্গাদের ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা দিয়েছে অ্যাডভেন্টিস্ট ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড রিলিফ এজেন্সি (এডরা)।

১৯ ও ২১ আগস্ট দু’দফা বৈঠক শেষে রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহকে এ টাকা দেয়া হয়। এডরার মূল ডোনার কানাডা। এছাড়াও অংশীদার হিসেবে রয়েছে চেক প্রজাতন্ত্র, দক্ষিণ কোরিয়া এবং সুইডেন। জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থার বিভিন্ন তহবিল নিয়েও কাজ করেছে তারা।

তবে সমাবেশে টাকার দেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেছে তারা। এ ব্যাপারে সরাসরি বক্তব্য জানা যায়নি। তবে এডরার ওয়েবসাইটে একটি বিবৃতি পাওয়া গেছে। এতে বলা হয়, তারা কোনো ধর্মীয় ও রাজনৈতিক কর্মসূচিতে জড়িত নয়। যে কারণে তাদের কার্যক্রম বন্ধ করা হয়েছে, তা সত্য নয়।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 44 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com