শিশু পুত্রকে রক্ষা করতে গিয়ে করতে কানাইঘাটে মায়ের মৃত্যু

Print

 

মুফিজুর রহমান নাহিদ সিলেট জেলা
প্রতিনিধিঃসিলেটের কানাইঘাটে বন্যার পানি থেকে রেহাই পেতে আশ্রয় নেয়া হলো না বিধবা হোসনে আরা বেগমের। শিশু পুত্রকে রক্ষা করতে গিয়ে নিজের জীবন দিতে হলো বন্যার পানিতে। মঙ্গলবার বিকাল ৩টায় দিঘীরপাড় পূর্ব ইউপির সড়কের বাজার সংলগ্ন স্থানে এ ঘটনাটি ঘটেছে। জানা যায়, সে একই ইউপির দক্ষিণ ঠাকুরেরমাটি গ্রামের মতি মিয়ার বিধবা মেয়ে। স্বামী মারা যাওয়ার পর থেকে সে দু’সন্তান নিয়ে বাবার বাড়ীতে বসবাস করছে। উপজেলা জুড়ে টানা কয়েকদিনের বন্যার পানিতে প্রতিটি ইউনিয়ন তলিয়ে যায়। বর্তমানে সুরমা নদীর পানি কমার সাথে সাথে ৭টি ইউপিতে পানি কমতে থাকে। কিন্তু পাশ্ববর্তী জকিগঞ্জ উপজেলার কুশিয়ারা নদীর জোয়ার আটগ্রাম হয়ে কানাইঘাট উপজেলার দিঘীরপাড় পূর্ব ও সাতবাঁক ইউপিতে ব্যাপক বন্যা দেখা দিয়েছে। এতে এ দু’ইউপিতে কোন আশ্রয় কেন্দ্র না থাকায় অসহায় মানুষদের জন্য ইউপি কমপ্লেক্স গুলোকে আশ্রয় কেন্দ্র হিসেবে প্রস্তুত রেখেছেন চেয়ারম্যানবৃন্দ। এতে হোসনে আরা বেগম আশ্রয় কেন্দ্রে যাওয়ার পথে সাড়ে ৪ বছরের শিশু পুত্র স্রোতের পানিতে পড়ে যায়। এ তিনি সন্তান রক্ষা করতে পারলেও বানের পানিতে জীবন দিত হল তার। ভাগ্যক্রমে পাশে থাকা একটি লোক মা ছেলের মর্মান্তিক এ দৃশ্য দেখে দ্রুত ছুঠে এসে মায়ের তুলে দেওয়া ছেলেটিকে পাড়ে তুলে এবং হোসনে আরাকে সে রক্ষা করতে না করতে স্রোতের টানে সে পানিতে তলিয়ে যায়। পরে ঐ লোকটির চিৎকারে আশপাশে থাকা লোকজন অনেক চেষ্টা করেও তাকে খোঁজে পায়নি। অবশেষে বিকেল ৪টায় সড়কের বাজারের দক্ষিন পাশ থেকে তার মৃত দেহ উদ্ধার করেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এ দু’ইউপিতে কেবলই পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 165 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com