সিকিম ভ্রমণের বিস্তারিত

Print

#সিকিমভ্রমণেরবিস্তারিত

সিকিম নিয়ে নতুন কিছু বলার নাই, আমরা সবাই জানি। যেহেতু সিকিম ভ্রমণের ক্ষেত্রে আমরা বিদেশী তাই আমাদের ভ্রমণের আগে অনেক কিছুই জানা দরকার।

★ঢাকা থেকে কিভাবে বর্ডারে আসবেন?
ঢাকা থেকে পিংকি/মানিক/বরকত ট্রাভেল সহ আরো গাড়ি চ্যাংড়াবান্ধার উদ্দেশ্যে গাড়ি ছাড়ে। ভাড়া
এসি তে :৮৫০- ১২০০ টাকা
নন-এসি: ৬০০-৬৫০ টাকা

★কোন বর্ডার দিয়ে যাত্রা শুরু করবেন?
আপনি চাইলে চেংরাবান্ধা/ফুলবাড়ি যেকোন বর্ডার দিয়ে যাত্রা শুরু করতে পারেন। আগেই বলে রাখি, আপনি চাইলে তাড়াতাড়ি বর্ডার পার হওয়ার জন্য ঢাকা থেকে ট্রাভেল ট্যাক্স দিয়ে আসতে পারেন, তাহলে আপনার সময় বাঁচবে।

★চেংরাবান্ধা থেকে গ্যাংটক কিভাবে যাবেন?
চেংরাবান্ধা বর্ডার পার হয়ে, আপনি চাইলে শেয়ার জীপ বা রিজার্ভ করেও শিলিগুড়ি যেতে পারেন। শেয়ার জীপে ভাড়া ২৭0 আর রিজার্ভ করে গেলে ১000 থেকে ১৫00 টাকা ভাড়া পড়বে।

শিলিগুড়ি থেকে আবার আপনাকে শেয়ার জীপ বা রিজার্ভ করে গ্যাংটক যেতে হবে। রিজার্ভ করে গেলে ২৫০০ থেকে ৩০০০ ভাড়া পড়বে। আর শিলিগুড়ি থেকে সব গাড়ি গ্যাংটকের যেখানে নামায়, সেখান থেকে 200 রুপীতে চলে যাবেন MG Murg.

★সিকিম যাওয়ার পারমিট কোথায় নিবেন?

আপনি চাইলে ঢাকা থেকে আবেদন করে নিতে পারেন, আবার “র‍্যাংপো চেকপোস্ট” থেকেই ততক্ষণাৎ নিতে পারবেন। সেক্ষেত্রে এক কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি, ভিসা আর পাসপোর্ট এর ফটোকপি সহ আবেদন করবেন। যতজন যাবেন ততজনের এই এইগুলা লাগবে। আর যখন সিকিম ত্যাগ করবেন, অবশ্যই এই আবেদনের কপি জমা দিয়ে পাসপোর্ট এ সিলে তারিখ লিখে নিবেন, নাহলে পরেরবার ভারত ভ্রমণে সমস্যা হতে পারে।

★সিকিমে কি কি দেখবেন

পুরো সিকিমে নর্থ সিকিম অনেক সুন্দর। সিকিমে কোথাও যেতে হলে, আপনাকে সিকিম সরকার কর্তৃক অনুমোদিতে এজেন্সীর মাধ্যমে পারমিশন নিতে হবে। তাই আমাদের নিজের স্বাধীনভাবে কোথায় যাওয়া মুশকিল, যেভাবে কোলকাতায় ঘুরি আরকি!

আর প্যাকেজ দেখেশুনে নিবেন, সত্যি বলতে এজেন্সি গুলা ডাকাত। আপনাকে দরদাম করে নিতে হবে। আমরা 2 দিন এক রাতের প্যাকেজ নিয়েছিলাম ১২৫০০ রুপী তে।

আরেকটা কথা না বললেই না, যদি কোন কারণে রাস্তা বন্ধ থাকে, আপনারা যেখানে যাওয়ার কথা সেখানে না যেতে পারেন, তাহলে কিন্তু টাকা ফেরত পাবেন না। তাই প্যাকেজ নেয়ার আগে, “Foreigner Information Office” থেকে যেনে নিবেন আপনি যেখানে ভ্রমণ করছেন, তাতে যাওয়া সম্ভব কিনা। তারাই আপনাকে বলে দিবে।

★হোটেল
হোটেল পেয়ে যাবেন, ১০০০ থেকে ২০০০ এর মধ্যে। তবে, MG Murg এর আশেপাশে নেয়ার চেষ্টা করবেন, কারণ পাহাড়ি এলাকা, বেশী উপরে হোটেল হলে, কষ্ট ভালোই হয়।

★★★যা না জানলে আপনি বিপদে পড়তে পারেন

১. প্যাকেজ বুক করার আগে, “Foreigner Information Desk” থেকে জেনে নিবেন যে আপনার গন্তব্যস্থানে যেতে পারবেন কিনা। কারণ এটা এজেন্সি কখনো বলেনা, মাঝ রাস্তায় গিয়ে বলে, রাস্তা বন্ধ, তাতে আপনার টাকা জলে যাবে।
২. হোটেলে উঠার আগে, গিজার আর ওয়াইফাই আছে কিনা জেনে নিবেন কারণ প্রচুর ঠান্ডায় গিজার ছাড়া আপনি পানি ব্যবহার করতে পারবেন না আর সিকিমে আপনি সিম পাবেন না কারণ পাসপোর্ট দিয়ে সিম কিনতে পারবেন না, তাই ওয়াইফাই ই আপনার যোগাযোগর একমাত্র ভরসা।
৩. নর্থ সিকিমে পলিথিন ব্যবহার নিষিদ্ধ, তাই আপনার কাছে পলিথিনের ব্যাগ/প্লাস্টিকের বোতল পেলে ৫০০০ রুপি জরিমানা হতে পারে।
৪. নর্থ সিকিমের প্যাকেজ নিলে, বৃত্তান্ত জেনে নিবেন, কি খাবার খাওয়াবে, কোন হোটেলে রাখবে সব।

বি:দ্র: পরিবেশ পরিষ্কার রাখুন, ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সুন্দর পৃথিবী উপহার দিন।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 253 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com