হানিফ পরিবহনের কর্মচারী রবিউল হত্যায় ব্যবহৃত বাসসহ ডাকাত আটক

Print

খোরশেদ আলম,  ঢাকাঃ  জেলা প্রতিনিধি

 রাজধানী ঢাকার অদূরে আশুলিয়ার ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের পাশ থেকে হানিফ পরিনহনের কাইন্টার সুপারভাইজর রবিউল ইসলামের হত্যাকান্ডের ঘটনায় আন্ত:জেলা পরিবহন ডাকাত দলের ৩ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।
শনিবার রাতে নিহত রবিউলের মুঠোফোন ও নাম্বারে আধুনিক প্রযুক্তি প্রয়োগ করে খুনিদের অবস্থান জেনে সাভারের হেমায়েতপুরে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।  রাত সাড়ে ১১টা  পর্যন্ত অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেপুলিশের পক্ষ থেকে সাংবাদিকদের জানানো হয়।
নিহত মো. রবিউল ইসলাম আশুলিয়ার সিন্দুরিয়া গ্রামের মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে। সে বাইপাইলে হানিফ পরিবহনের কাউন্টারে সুপারভাইজর হিসেবে কাজ করত এবং পল্লী বিদ্যুৎ এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতো।
আশুলিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক ( ইন্টিলিজেন্স) ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা তছলিম হোসেন এই প্রতিবেদকে জানান, রবিউলের লাশ উদ্ধারের পর থেকে খুনিদের কাছে পৌছাতে বিভিন্ন সূত্রকে সামনে নিয়ে আমরা অভিযানে নামি। মামলার অধিকতর তদন্তের স্বার্থে আটককৃত দের নাম এই মুহূর্তে প্রকাশ করা যাচ্ছেনা বলে ওই কর্মকর্তা বলেন। তিনি দাবী করে আরও বলেন, আটকৃত তিনজন ছাড়াও আরো জড়িত ডাকাতদের আইনের আওতায় আনতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তবে আটকৃতরা আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য। ডাকাতদের ব্যবহৃত আল-আমিন পরিবহনের বাসটিও জব্দ করা হয়েছে। ডাকাতির উদ্দেশ্যেই পরিবহনটি ব্যবহৃত হচ্ছিল। খুন হওয়া ব্যক্তি বাসায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাইপাইল থেকে আল-আমিন পরিবহন নামক বাসে উঠেছিল। রবিউল বুঝতে পারেনি বাসে ডাকাত দল ছিল। বাসে উঠার পর অন্যান্য যাত্রীর সাথে সেও ডাকাতদের কবলে পড়ে। ডাকাতদের বাধা দিতে গেলে ডাকাতরা তাকে ছুরিকাঘাত করে।
উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার ভোরে ঢাকা-আচিরা মহাসড়কের জাহাঙ্গীরনগর বিম্ববিদ্যালয়ের মুল ফটকের বিপরীতে ডেইরী ফার্মের সীমানা প্রাচীরের নিকট রবিউল ইসলামের মরদেহ উদ্ধার করেন পুলিশ। প্রথমে রবিউলের স্বজনদের খোজ পায়নি পুলিশ। নিহতের পরিবারের সদস্যরা রনিউলকে না পেয়ে থানা পুলিশকে অবহিত করতে গিয়ে রবিউলের লাশটি দেখে সনাক্ত করেন। এরপর নিহতের মাঝে বাদী হয়ে হতে্যা মামলা দায়ের করলে পুলিশ খুনিদের আটকে মাঠে নামে।
[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 66 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com