হ্যারিকে বিয়ের আগেই বন্ধুরা সতর্ক করেছিল

Print

যুক্তরাজ্যের রাজপরিবারের পুত্রবধূ ও ডাচেস অব সাসেক্স মেগান মার্কেল জানিয়েছেন প্রিন্স হ্যারিকে বিয়ের আগেই বন্ধুদের কাছ থেকে সতর্ক বার্তা পেয়েছিলেন তিনি। ব্রিটিশ ট্যাবলয়েডগুলো থেকে রুঢ় আক্রমণ আসতে পারে বলে বন্ধুরা তাকে সতর্ক করেছিলো বলে জানিয়েছেন তিনি। গত রবিবার রাতে যুক্তরাজ্যের টিভি চ্যানেল আইটিভিতে প্রচারিত এক ডকুমেন্টারিতে এসব কথা বলেছেন ৩৮ বছর বয়সী এই সাবেক অভিনেত্রী। এছাড়াও ওই ডকুমেন্টারিতে নিজের ওপরের চাপ নিয়েও কথা বলেছেন তার স্বামী প্রিন্স হ্যারি। আফ্রিকার দক্ষিণাঞ্চলে এই দম্পত্তির সাম্প্রতিক সফরকে ঘিরে প্রচারিত হয় ‘হ্যারি অ্যান্ড মেগান: অ্যান আফ্রিকান জার্নি’ শীর্ষক ওই ডকুমেন্টারিটি।২০১৮ সালের মে মাসে বৃটিশ রাজপরিবারের ইতিহাসে অনন্য এক জাকজমকপূর্ণ আয়োজনের মধ্য দিয়ে পরস্পরের জীবনসঙ্গী হন প্রিন্স হ্যারি ও মেগান মার্কেল। সেন্ট জর্জ চ্যাপেলে রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ ও অভিজাত ৬০০ অতিথির উপস্থিতিতে পরস্পরকে বিয়ের বন্ধনে জড়ান তারা। রাজপরিবারের এই নতুন দম্পতি তখন থেকে পরিচিত হয়ে আসছেন ডিউক ও ডাচেস অব সাসেক্স হিসেবে।

রবিবার রাতে প্রচারিত ওই ডকুমেন্টারিতে ব্রিটিশ রাজপরিবারের সদস্য হিসেবে সংবাদমাধ্যমের আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা সদ্যজাত শিশু আর্চির মা হিসেবে নিজের সংগ্রামের কথাও বলেছেন মেগান মার্কেল। তিনি বলেন, “আমি যখন প্রথমবার আমার এখনকার স্বামীর সঙ্গে দেখা করেছিলাম তখন আমার বন্ধুরা সত্যিই খুশি হয়েছিলো কারণ আমিও খুশি হয়েছিলাম। কিন্তু আমার ব্রিটিশ বন্ধু আমাকে বলেছিল, ‘আমি নিশ্চিত সে খুবই ভালো কিন্তু তোমার এটা করা উচিত না কারণ ব্রিটিশ ট্যাবলয়েডগুলো তোমার জীবন ধ্বংস করে দেবে’। ” “আর আমি খুবই সরলভাবে- (বলেছিলাম) আমি আমেরিকান, সেখানকার বিষয়গুলোতে আমরা নেই- বলেছিলাম, ‘তোমরা কী নিয়ে কথা বলছো? কোনও কিছু ধারণা করা যায় না। আমি ট্যাবলয়েডে নেই’। আমি আসলে তাদের কথা বুঝতে পারিনি। সেকারণে এত বেশি জটিল হয়ে গেছে।”, বলেন তিনি।

আবেগপূর্ণ ওই ডকুমেন্টারিতে নতুন ডাচেস অব সাসেক্স নববিবাহিত আর নতুন মা হিসেবে মিডিয়ার ঝলকানিতে থাকা নিজের জীবন নিয়ে কথা বলেন। দুঃখ প্রকাশ করে তিনি বলেন, খুব বেশি মানুষ আমাকে জিজ্ঞেস করে না আমি ভালো আছি কিনা। স্বামী প্রিন্স হ্যারি প্রসঙ্গে মেগান মার্কেল বলেন, ‘সৎভাবে বলি আমি বহুবার এইচ’কে বলেছি-আমি ওই নামেই তাকে ডাকি- কোনওভাবে শুধু বেঁচে থাকাটাই যথেষ্ট নয়, এটা জীবনের অর্থ নয়। জীবনে সমৃদ্ধ হতে হয়’।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 37 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com