১৪ দলে অস্তিত্ব সংকটে ওয়ার্কার্স পার্টি

Print

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলে থাকা নিয়ে ঝুঁকিতে জোটের অন্যতম শরিক বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি। জোটে থাকা না থাকা নিয়ে পার্টির মধ্যে আগে থেকেই দ্বন্দ্ব রয়েছে। এখন জোটের মধ্যেও নতুন করে অস্তিত্ব সংকট তৈরি হতে পারে।

এই সমস্যার শুরু মূলত ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেননের এক বক্তব্যকে কেন্দ্র করে। তার ওই বক্তব্যে শুধু আওয়ামী লীগই ক্ষুব্ধ নয়, জোটের শরিক দলগুলোর নেতারাও বিব্রত এবং কেউ কেউ ক্ষুব্ধ হয়েছেন।

গত ১৯ অক্টোবর বরিশালে ওয়ার্কার্স পার্টির জেলা সম্মেলনে মেনন অভিযোগ করেন, গত ৩০ ডিসেম্বরের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জনগণ ভোট দিতে পারেনি। তিনি বলেন, ‘আমি সাক্ষী, এই নির্বাচনে আমিও নির্বাচিত হয়েছি। আমি সাক্ষী দিয়ে বলছি, আমি জনগণ, সেই জনগণ, তারা ভোট দিতে পারে নাই।’

যদিও এই বক্তব্যে সমালোচনার মুখে পরের দিনই এক বিবৃতিতে সাবেক মন্ত্রী বলেছেন, গণমাধ্যমে ভুল বার্তা এসেছে। আমার বক্তব্য সম্পূর্ণভাবে উপস্থাপন না করে অংশ বিশেষ উপস্থাপন করায় এই বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে। কিন্তু, তাতে পরিস্থিতির পরিবর্তন আসেনি। কারণ, ভিডিও ফুটেজে রাশেদ খান মেননের বক্তব্য স্পষ্ট।

এই পরিস্থিতিতে তিনি যাতে আওয়ামী লীগের কর্মীদের ক্ষোভের মুখে না পড়েন, সে জন্য তাকে সতর্ক করা হয়েছে। পরামর্শ দেওয়া হয়েছে, আওয়ামী লীগের কোনো কার্যালয়ে না যেতে। দলটির ক্ষুব্ধ কর্মীরা তার উপর চড়াও হতে পারে বা কোনো ধরনের বিরূপ মন্তব্য করতে পারে, এমন আশঙ্কা করছেন খোদ ক্ষমতাসীন দলের নেতারাই। ফলে, গত মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ১৪ দলের পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচিতে যাননি ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি।

রাশেদ খান মেনন জোটের একজন শীর্ষ স্থানীয় নেতা, নিজেও সংসদ সদস্য এবং আগের সরকারের মন্ত্রীও ছিলেন। তার এধরনের বক্তব্যে আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা বিব্রত ও হতবাক হয়েছেন। আওয়ামী লীগ ও ১৪ দলের প্রধান প্রতিপক্ষ বিএনপি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে বরাবরই এধরনের মন্তব্য করে আসছে। সেটাই এখন প্রতিধ্বনিত হলো ১৪ দলের জোট গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা রাশেদ খান মেননের মুখ থেকে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 46 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com