১৮ ঘণ্টায়ও পার হওয়া যায়নি বঙ্গবন্ধু সেতু

Print

ঢাকার গাবতলী থেকে রওনা দিয়ে বঙ্গবন্ধু সেতু পার হতে তিন-চার ঘণ্টা লাগার কথা থাকলেও ঈদের আগে থেমে থেমে যানবাহন চলায় ১৮ ঘণ্টারও বেশি সময় লাগছে যাত্রীদের। পুলিশ ও বিআরটিএর কিছু কর্মকর্তার সঙ্গে পরিবহন নেতাদের যোগসাজশে ফিটনেসহীন ও লোকাল বাস চলতে দেওয়ায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যাত্রার প্রায় শেষ পর্বে বিপত্তি ঘটে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

গত শুক্রবার রাত ১১টায় গাবতলী বাস টার্মিনাল থেকে হক এন্টারপ্রাইজের বাসে দিনাজপুরের পাবর্তীপুরের উদ্দেশে রওনা দেন হাবিবুর রহমান ফারুক। সঙ্গে ছিলেন স্ত্রী নাসরীন আক্তার ও দুই ছেলে আয়ান (১) ও আয়াত (৪)। পার্বতীপুর পৌর শহরের নতুন বাজারে শ্বশুরবাড়িতে যাবেন ফারুক। বাস দেরিতে ছাড়লেও ঈদ যাত্রার উচ্ছ্বাস ছিল তাঁদের মধ্যে। যাত্রা শুরুর পর ধীরে ধীরে ফিকে হতে থাকে তাঁদের আনন্দের রং। গতকাল শনিবার বিকেল সাড়ে ৪টায় তাঁদের বাসটি বঙ্গবন্ধু সেতুতেই উঠতে পারেনি। যেখানে ঢাকা থেকে পার্বতীপুর যেতে আট ঘণ্টা লাগে, সেখানে বঙ্গবন্ধু সেতুতে ১৬ ঘণ্টায়ও পৌঁছা সম্ভব হয়নি। বিকেল সাড়ে ৫টায় ফারুক জানান, বঙ্গবন্ধু সেতু পার হওয়ার পর ৩০ মিনিট ধরে বাস সামনে চলছে না। বাচ্চারা কান্না করে ঘুমিয়ে পড়েছে।

এই বাসের একাধিক যাত্রী জানায়, ভোরের আলো ফোটার পর টাঙ্গাইলের মির্জাপুর এসেছেন। কোনো জায়গায় টানা তিন ঘণ্টা আটকে থাকতে হয়েছিল। মহাসড়কে যানজটে হকাররা যাই দিচ্ছিল তাই ছিল যাত্রীদের খাবার। একপর্যায়ে খাবারের পানিও শেষ হয়ে যায় ফারুকের। ছেলে আয়ান ও আয়াত গরমে ঘেমে অস্থির হয়ে কখনো কাঁদছিল। তাদের নিয়ে বাস থেকে বের হওয়ারও অবস্থা ছিল না। ভোগান্তিতে পড়া যাত্রীরা সকাল পৌনে ১১টায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের রাবনা বাইপাসসহ বিভিন্ন স্থানে গাড়ি ভাঙচুর করে। যাত্রীরা বাস ও ব্যক্তিগত যানবাহন থেকে বের হয়ে এ বিক্ষোভে অংশ নেয়।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 35 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com