৫ প্রকল্পের কাজ সময়মতো শেষ হচ্ছে না

Print

নির্ধারিত ব্যয় ও সময়ে বাস্তবায়ন হচ্ছে না ৫ মেগা প্রকল্প। এতে খরচ বেড়ে যাচ্ছে প্রায় ৪২ হাজার ১৫৭ কোটি টাকা। এরপরও বর্ধিত সময়ে কাজ শেষ হওয়া নিয়ে শঙ্কা আছে। ফলে এসবের সুফল ভোগের বিষয় আটকে যাচ্ছে দীর্ঘসূত্রতায়। খবর সংশ্লিষ্ট সূত্রের। প্রকল্পগুলো হচ্ছে- পদ্মা সেতু, কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ, সাপোর্ট টু ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে পিপিপি প্রজেক্ট, পদ্মা সেতুতে রেল সংযোগ এবং দোহাজারী-রামু-গুনদুম পর্যন্ত রেলপথ নির্মাণ। ৫ প্রকল্পের মূল অনুমোদিত ব্যয় ছিল ৫৮ হাজার ৬৬৬ কোটি ৪৬ লাখ টাকা। নানা কারণে ব্যয় বেড়ে ১ লাখ ৮২৪ কোটি টাকা দাঁড়িয়েছে। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে- নকশায় ক্রটি, সম্ভাব্যতা যাচাই দুর্বলতা, অর্থায়ন জটিলতা, ভূমি অধিগ্রহণ ও পুনর্বাসন ব্যয় বৃদ্ধি। সমস্যাগুলোর কারণেই বাস্তবায়নের সময়ও বাড়ানো হয়েছে।

প্রকল্প পরিচালকরা বলছেন, বাস্তবায়ন দেরি হলে ব্যয় তো কিছুটা বাড়বেই। এসব ক্ষেত্রে ব্যয় বৃদ্ধির যুক্তিসঙ্গত কারণও আছে। এদিকে বাস্তবায়ন, পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগ (আইএমইডি) বলছে, ৭০ শতাংশ প্রকল্পই নির্ধারিত সময়ে শেষ হয় না। অনেক সময় বাস্তব অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে ব্যয় ও মেয়াদ বাড়লেও নির্দিষ্ট সময়ে, প্রকল্পগুলোর বাস্তবায়ন জরুরি। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. সালেহউদ্দিন আহমেদ যুগান্তরকে বলেন, এটা জনগণের টাকার অপচয়। যথাসময়ে প্রকল্পগুলো বাস্তবায়িত হলে অনেক কম খরচ হতো। যারা সম্ভাব্যতা যাচাই করেন তারা অধিকাংশ ক্ষেত্রে সময় নির্ধারণের বিষয়ে দক্ষ হন না। সঠিকভাবে ব্যয়ও নির্ধারণ করতে পারেন না। এছাড়া নানা কারসাজিও থাকে। ফলে কস্ট বেড়ে যায়। প্রকল্প প্রণয়ন, বাস্তবায়ন এবং মনিটরিংসহ সব জায়গায় দুর্বলতা রয়েছে। এ কারণে প্রকল্পের সুফল জনগণ দেরিতে পায়।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 47 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com