৭২ বছর পর নৌপথে ঢাকা-কলকাতা ভ্রমণ

Print

নৌপথে ঢাকা-কলকাতা-ঢাকা যাতায়াত। অবাক হওয়ারই কথা। তবে এটি ৭২ বছর পূর্বের ইতিহাস। ব্রিটিশ শাসনামলে আসাম থেকে ঢাকা-চাঁদপুর-বরিশাল হয়ে কলকাতা চলত স্টিমার। সময় লাগত ১০ দিন। দেশভাগের পর এই সার্ভিস বন্ধ হয়ে যায়। ১৯৪৭ সালে ব্রিটিশরা চলে যাওয়ার সময় এই উপমহাদেশকে ধর্মের ভিত্তিতে দু’ভাগ করে দিয়ে গেছে।

ধর্মের ভিত্তিতে দেশভাগ পৃথিবীর ইতিহাসে বিরল ঘটনা বটে। একই ভাষা, একই সংস্কৃতি, একই চিন্তা-ভাবনার মানুষ; অথচ ভিসা-পাসপোর্টের বেড়াজালে আটকে গেল উপমহাদেশের অত্যন্ত অভিজাত ও গুরুত্বপূর্ণ ঢাকা-কলকাতা এই দুই শহর।

৭২ বছরে পৃথিবীতে অনেক ঘটনা ঘটে গেছে। ইতিমধ্যে দুই দেশের মানুষজন প্লেনে, ট্রেনে বা বাসে চড়েই ঢাকা-কলকাতা যাওয়া-আসা করছে। প্রতিবছর এই তিনটি পথে মোট ১৫ লাখ যাত্রী ঢাকা-কলকাতা যাওয়া-আসা করে। এদিকে নৌপথে পণ্য পরিবহন চালু থাকলেও সাধারণ যাত্রীদের চলাচলের সুযোগ ছিল না। নৌপথে ভ্রমণের সেই সুযোগটা এনে দিয়েছে বাংলাদেশ ও ভারত সরকার।

‘এমভি মধুমতি’ নামের জাহাজ চলতি বছরের ২৯ মার্চ ঢাকা ত্যাগ করে কলকাতা বন্দরের উদ্দেশে। আমি বড়ই সৌভাগ্যবান- দেশের বাইরে আমার জীবনের প্রথম ভ্রমণ, ইতিহাসের সাক্ষী হয়ে সেই প্রমোদতরীতে করে। ঢাকা-কলকাতার ঐতিহাসিক সেই ৬৪ ঘণ্টার জাহাজ ভ্রমণের অভিজ্ঞতা আমার ও সহযাত্রীদের মনে গেঁথে থাকবে বহুকাল।

ব্রিটিশ শাসনামলে উভয় বাংলার মধ্যে নৌপথে মানুষ ও পণ্যের ছিল অবাধ যাতায়াত। দেশভাগের পর তৎকালীন পাকিস্তান শাসনামলে দু’দেশের মধ্যে জলপথে পণ্য পরিবহন হলেও বন্ধ হয়ে যায় যাত্রী পরিবহন। বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৭১ সালে দু’দেশের মধ্যে নৌ-প্রটোকল স্বাক্ষরিত হয়।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin24@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 61 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ
bdsaradin24.com