বাফুফের সংশ্লিষ্ট হলেই পাবেন রাশিয়া ফুটবল বিশ্বকাপের টিকিট

Print
বিশ্বকাপের টিকিট মানেই সোনার হরিণ। ফিফার কাছ থেকে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন এবার সেই সোনার হরিণ অর্থাৎ টিকিট পেয়েছে ২৯০টি। কারা সেই টিকিটগুলো কিনতে পারবেন, তা আজ ঘোষণা করেছে বাফুফে। ক্রেতাদের হতে হবে বাফুফের নির্বাহী কমিটির সদস্য, বাফুফের সদস্য সংস্থাগুলোর কর্মকর্তা, ক্লাব কর্মকর্তারা, পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান, বাফুফেতে কর্মরত কর্মকর্তারা ও ফুটবলাররা। একজন দুটির বেশি টিকিটের জন্য আবেদন করতে পারবেন না। টিকিট বণ্টনের জন্য ছয় সদস্যের একটি বিশেষ কমিটিও গঠন করেছে বাফুফে।

অর্থাৎ সাধারণ দর্শকের জন্য কোনো টিকিটের ব্যবস্থাই রাখেনি বাংলাদেশের ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা। সাধারণ দর্শকদের জন্য টিকিট না রাখা প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ বলেন, ‘ফিফার গাইডলাইন অনুসরণ করা হয়েছে। ফিফা আমাদের স্টেকহোল্ডারদের মধ্যে বিতরণ করতে নির্দেশ দিয়েছে। সাধারণ দর্শকদের জন্য অনলাইন টিকিটের ব্যবস্থা ছিল।’

ইতিমধ্যে অনলাইনে টিকিট কাটার সময় শেষ হয়ে গেছে। বাংলাদেশ থেকে অনেকেই হয়তো অনলাইনে টিকিট নিয়েছেন। এ ছাড়া স্বেচ্ছাসেবক হিসেবেও কিছু বাংলাদেশি বিশ্বকাপে পা রাখার সুযোগ পেয়েছেন বলে জানা যায়।

প্রতিটি ম্যাচেরই তিন ক্যাটাগরির টিকিট পেয়েছে বাফুফে। উদ্বোধনী ও ফাইনাল ম্যাচের টিকিটের মূল্য সবচেয়ে বেশি। উদ্বোধনী ও ফাইনালের তিন ক্যাটাগরির টিকিটের মূল্য যথাক্রমে ৫৫০, ৩৯০, ২২০ এবং ১১০০, ৭১০ ও ৪৫৫ ডলার। গ্রুপ পর্যায়ের ম্যাচের সর্বনিম্ন ক্যাটাগরি টিকিটের মূল্য ১০৫ ডলার। প্রতি টিকিটের সঙ্গে বাফুফে ১০ শতাংশ সার্ভিস চার্জ রাখবে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 138 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ