বিকাশে টাকা দিলেই মিলত এসএসসির প্রশ্ন!

Print

চলমান এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে দুই শিক্ষক ও পাঁচ ছাত্রকে আটক করা হয়েছে। নওগাঁ জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) ও জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা (এনএসআই) সংস্থার যৌথ দল গতকাল শনিবার রাত ১০টা থেকে আজ রোববার সকাল সাড়ে ৮টা পর্যন্ত জেলার পত্নীতলা ও ধামইরহাট এবং জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে।

আজ রোববার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নওগাঁ পুলিশ সুপার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এসব তথ্য জানানো হয়।

আটক ব্যক্তিরা হলেন পত্নীতলার চকরঘু গ্রামের শিক্ষক আল মামুন (২৯), গুটিন গ্রামের শিক্ষক আনোয়ার হোসেন (৩০), চকজয়রাম গ্রামের ছাত্র জাহিদ হাসান ইমন (১৬), চকজয়রাম দক্ষিণপাড়ার প্রভাত কুমার মহন্ত (১৬), চকখিরসিন গ্রামের মর্তুজা আহমেদ (১৬), ধামইরহাটের আড়ানগর গ্রামের জহুরুল ইসলাম শাহিন (১৭) ও আক্কেলপুরের হাস্তাপাড়া গ্রামের ইসরাফিল আলম (১৬)। তাদের বিরুদ্ধে পাবলিক পরীক্ষা আইনে মামলা করা হয়েছে।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুর রফিক বলেন, চক্রটি দীর্ঘদিন থেকে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের সঙ্গে জড়িত। তারা ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিভিন্নভাবে প্রশ্নপত্র সংগ্রহ করে টাকার বিনিময়ে বিক্রি করেন। গোপন তথ্যের ভিত্তিতে জেলা গোয়েন্দা সংস্থা ও এনএসআই পত্নীতলা উপজেলা নজিপুর বাজারে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় বাজারে পৌরসভা এলাকায় অবস্থিত আশীর্বাদ নামক ছাত্রাবাস থেকে শিক্ষক আল মামুন ও তিন ছাত্রকে আটক করা হয়। তাঁদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বাকিদের আটক করা হয়।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 160 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ