যুক্তরাষ্ট্রে কেন এত বন্দুক হামলা

Print

বিশ্বজুড়ে যখন পালন হচ্ছে ভ্যালেন্টাইন ডে, তখন আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার পার্কল্যান্ড এলাকায়। বুধবার অর্থাৎ ১৪ ফেব্রুয়ারি দুপুর আড়াইটায় পার্কল্যান্ডের মার্জরি স্টোনম্যান ডগলাস হাই স্কুলে অতর্কিতে হামলা চালায় ওই স্কুলেরই এক সাবেক ছাত্র। মুহূর্তেই লুটিয়ে পড়ে স্কুলের শিক্ষার্থীসহ অন্তত ১৭ জন। মিয়ামি থেকে ৭২ কিলোমিটার উত্তরের ওই স্কুলের শিক্ষার্থীরা তখন অপেক্ষা করছিল বাড়ি ফেরার। কিন্তু তারা জানে না উৎসবের আনন্দ নয়, কান্না নিয়ে বাড়ি ফিরতে হবে তাদের। হামলাকারী নিকোলাস ক্রুজ একটি অ্যাসল্ট রাইফেল নিয়ে এলোপাতাড়ি গুলি চালিয়ে হত্যা করে তারই কয়েকজন সহপাঠীকে। ফায়ার এলার্ম বাজিয়ে শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের শ্রেণিকক্ষ থেকে বের হয়ে হলওয়েতে আসতে বাধ্য করে সে। তারপরই চালায় গুলি। মাত্র ১৯ বছর বয়স তার। কিন্তু কেন এই হত্যাকা-? এর কারণ আর কিছুই না। প্রায়ই স্কুলে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি করতো বলে বছর খানেক আগে বহিষ্কার করা হয় ক্রুজকে। তারই প্রতিশোধ নিলো সে এভাবে!

তবে যুক্তরাষ্ট্রের স্কুলে হামলার ঘটনা নতুন নয়। প্রায়ই সেখানে স্কুলে হামলা হয়। গবেষণা প্রতিষ্ঠান এভরিটাউন ফর গান সেফটি, তাদের এক গবেষণায় দেখিয়েছে, ২০১৩ সাল থেকে এ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে ২৯১টি বন্দুক হামলা হয়েছে শুধু স্কুলে। অর্থাৎ অন্তত এক সপ্তাহে একটি করে হামলা হয়েছে। তবে ২০১২ সালে কানেকটিকাটের নিউটাউনে স্যান্ডি হুক প্রাইমারি স্কুলে বন্দুক হামলার ঘটনার পর, এই হামলাকেই সবচেয়ে ভয়ঙ্কর আর নৃশংস বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এ বছর এ নিয়ে স্কুলে হামলা হলো অন্তত ছয়বার। আর হামলার সংখ্যা ১৮টি। মাত্র দেড় মাসে বা ৪৫ দিনে ১৮টি হামলা! অর্থাৎ আড়াই দিনে একটি হামলা!

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 114 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ