সরিষাবাড়ীতে প্রশ্ন ফাঁস ঘটনায় আটক-৭

Print

সরিষাবাড়ী (জামালপুর)প্রতিনিধিঃজামালপুরের সরিষাবাড়ীতে প্রশ্ন ফাঁস ঘটনায় আটক-৭ জনকে আটক করে পুলিশ। পরে চিলড্রেন হোম পাবলিক স্কুলের ইংরেজী শিক্ষক শহিদুল ইসলাম নিরব কে ৮ ঘন্টা হাজতবাসের মুক্তি দিয়েছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার পৌরসভার রিয়াজ উদ্দিন তালুকদার উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের পাশে লুৎফর রহমান এর ভাডা বাসায় প্রশ্নপত্র উত্তর পত্রে লেখা কালে আটক ঘটনা ঘটে।
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সরিষাবাড়ী পৌরসভার আরানগর রিয়াজ উদ্দিন তালুকদার উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র সংলগ্ন লুৎফর রহমানের ভাড়া বাসায় পরীক্ষা শুরুর পূর্বে সকাল ৯টার দিকে ৫ পরীক্ষার্থী এবং ২ শিক্ষক মিলে এসএসসি পরীক্ষার পদার্থ বিজ্ঞান বিষয়ের প্রশ্ন মোবাইল থেকে বের করে উত্তর পত্রে লিখছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইফুল ইসলাম, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) ফিরোজ আল মামুন, সরিষাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল ইসলাম খান,ওসি (তদন্ত) তাহেরুল ইসলাম অভিযান চালান।এ সময় শিক্ষক ও পরীক্ষার্থীদের মোবাইল থেকে প্রশ্ন উত্তর পত্রে লেখা কালে তাদেরকে আটক করে থানায় আনা হয়।প্রশ্নপত্র ফাস ঘটনায় জডিত শিক্ষক উপজেলার চিলড্রেন্স হোম পাবলিক স্কুলের শিক্ষক শহিদুল ইসলাম নিরব,শেরপুর জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের সহকারী ইন্সট্রাক্টর স্থানীয় বলারদিয়ার গ্রামের বাসিন্দা ফারুক আহম্মেদ,চিলড্রেন্স হোম পাবলিক স্কুলের এসএসসি পরীক্ষার্থী মূলবাড়ী গ্রামের মেহেনাজ তাবাসসুম, সামর্থবাড়ি’র পরাগ ফারদিনা, আরামনগর বাজারের রুমানা আক্তার রিয়া ও মারজিয়া মুনতাহাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদের পর চিলড্রেন্স হোম পাবলিক স্কুলের জাহিদ হাসানকে আটক করে পুলিশ। এ খবর পেয়ে দুপুরে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রাসেল সাবরিন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, থানার অফিসার ইনচার্জকে নিয়ে ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেন। এ ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়েছে।পরে চিলড্রেন্স হোম পাবলিক স্কুলের ৫ পরীক্ষার্থীকে বহিস্কার করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইফুল ইসলাম। ওই পাচ পরীক্ষার্থীকে গাজীপুরের কোনাবাড়ী’র কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রে না পাঠিয়ে গতকাল মঙ্গলবার সন্ধায় সরিষাবাড়ী উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার রুহুল আমীন এর জিম্মায় শিক্ষার্থীদের অভিবাভকদের কাছে দিয়ে দেয়া হয়ছে।
সরিষাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল ইসলাম খান বলেন, প্রশ্ন ফাসের ঘটনায় শিক্ষক শহিদুল ইসলাম নিরব কে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। পাচ পরীক্ষার্থীকে গাজীপুরের কোনাবাড়ী’র কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রে না পাঠিয়ে গতকাল মঙ্গলবার সন্ধায় সরিষাবাড়ী উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার রুহুল আমীন এর জিম্মায় শিক্ষার্থীদের অভিবাভকদের কাছে দিয়ে দেয়া হয়ছে।অপর আটককৃত শেরপুর জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের সহকারী ইন্সট্রাক্টর ফারুক আহম্মেদ,এর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। মামলা নং-১৩ তারিখ ১৩-০২-১৮ইং।তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হবে।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইফুল ইসলাম বলেন, এসএসসি’র পাচ পরীক্ষআর্থীকে বহিস্কার করা হয়েছে। আরামনগর বাজার এলাকার ভাড়াটিয়া লুৎফর রহমানের একটি কক্ষে উত্তর পত্র লিখা অবস্থায় কাগজপত্র,মোবাইলে বিগত পরিক্ষার প্রশ্নপত্রসহ ৩টি মোবাইল জব্দ করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন,সরিষাবাড়ী উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার রুহুল আমীন এর জিম্মায় শিক্ষার্থীদের অভিবাভকদের নিকট দিয়ে দেয়া হয়ছে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 219 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ