হজ মৌসুমে রোহিঙ্গাদের পাসপোর্ট ঠেকাতে তোড়জোড়

Print

চলতি সালের হজ মৌসুমে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশি পাসপোর্ট নিয়ে সৌদি আরবে যেতে পারে এমন আশঙ্কায় গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন নজরদারি বাড়িয়ে দিয়েছেন। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিয়েছে পাসপোর্ট অধিদপ্তর। পাসপোর্টের জন্য আবেদনকারীদের এখন তিন দফা পরীক্ষা করা হচ্ছে। একই সাথে কড়াকড়ি ব্যবস্থাও আরোপ করা হচ্ছে পুলিশ ভেরিফিকেশনে।

চট্টগ্রাম বিভাগীয় ও কক্সবাজার পাসপোর্ট কার্যালয়ে স্বাভাবিক সময়ে প্রতিদিন ১৫০ থেকে সাড়ে ৪০০ আবেদন জমা হয়, আর বিলি করা হয় অন্তত সাড়ে ৩০০ নতুন পাসপোর্ট। একইভাবে আঞ্চলিক কার্যালয়ে ৪০০ আবেদন জমা পড়ার বিপরীতে ৩০০ নতুন পাসপোর্ট দেয়া হয়।

কিন্তু পবিত্র হজের আগে এই সংখ্যা বেড়ে যায় কয়েক গুণ। আর হজের গুরুত্ব বিবেচনা করে নির্ধারিত সময়ে পাসপোর্ট তৈরি করে দিতেও তড়িঘড়ি করতে হয় পাসপোর্ট অধিদপ্তরকে। এই সুযোগ কাজে লাগানোর চেষ্টা করছে রোহিঙ্গারা।

ট্রাভেল এজেন্সিগুলোর সংগঠন আটাব-এর সাধারণ সম্পাদক মুজিবুল হক শুক্কুর সরকারি সংস্থার এ ব্যাপারে আরও সতর্ক হওয়া প্রয়োজন বলে মনে করেন। তিনি বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় যেন যাচাই-বাছাই করে পাসপোর্ট দেয়। কারণ এই পাসপোর্টে রোহিঙ্গারা বিভিন্ন দেশে গিয়ে অপকর্মে লিপ্ত হয়।

হজ এজেন্সিগুলোর সংগঠন হাব চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহ আলম বলেন, ‘আমি পাসপোর্ট দেখে চিনব না কে বাংলাদেশি আর কে রোহিঙ্গা। তাই পাসপোর্ট দেওয়ার জায়গা থেকে এটি ঠিক করে নিতে হবে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 128 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ