আমি সবার কাছে বোঝা, কেউ আমাকে সম্মান করে না

Print

২২ গজের ‘দ্য ইউনিভার্সাল বস’ খ্যাত ক্রিস গেইল এবার ক্ষোভ উগড়ে দিলেন। টি-২০ ক্রিকেটের এই মহারাজা এখনও যেকোনও বোলারের সামনে যমরূপ ধারণ করেন। তবে যৌবনের সেই সোনালী সময়টা কোথায় যে হারিয়ে ফেলেছেন গেইল। তারপরও ব্যাট হাতে যে একেবারেই ঝড় তুলেন না তা নয়, মাঝেমধ্যেই তার তাণ্ডবলীগ দেখতে পায় ক্রিকেট দুনিয়া।

ক্যারিয়ারের শেষ প্রান্তে দাঁড়িয়ে ৪০ বছর বয়সী গেইলের উপলব্ধি হলো- দু-এক ম্যাচ পারফর্ম না করতে পারলেই তাকে সবাই দলের বোঝা মনে করে। সেটা জাতীয় দল থেকে শুরু করে ফ্র্যাঞ্জাইজি লিগগুলোতেও।

দক্ষিণ আফ্রিকায় চলছে টি-২০ ফ্র্যাঞ্জাইজি টুর্নামেন্ট জানসি সুপার লিগ। সেখানে তার দল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন জোজি স্টারস গত ৬ ম্যাচের একটিতেও জয়ের দেখা পায়। ৬ ম্যাচে গেইলের রান ১০১। এর মধ্যে পরশু সবশেষ ম্যাচে করেছেন ৫৪ রান।

জিততে জিততেও শেষ পর্যন্ত হেরে যাওয়া ওই ম্যাচের পরই সংবাদ সম্মেলনে এসে ক্ষোভ ঝাড়লেন গেইল। চার-ছক্কার এই দানবীয় বীর বলেন, ‘দু-তিন ম্যাচ রান না পেলেই গেইল দলের বোঝা হয়ে উঠে। গত কয়েক বছরে সব ফ্র্যাঞ্জাইজিগুলোতেই এ দৃশ্য দেখছি। ব্যাপারটা এমন হয়ে উঠে যে, গেইল শুধু একাই দলের বোঝা। অথচ কেউ মনে রাখে না গেইল তাদের জন্য কী করলেন। গেইল তখন তার প্রাপ্য সম্মানটুকুও পায় না।’

শুধু ফ্র্যাঞ্জাইজিগুলোই নয়, গেইলের বক্রোক্তি খেলোয়াড়, ম্যানেজমেন্ট, বোর্ড সদস্যসহ সবাইকে নিয়েই।

২২ গজের এই মহানায়ক বলেন, ‘আমি কখনও কোনও সম্মান পাইনি। এক-দুই ম্যাচে পারফর্ম করতে না পারলেই সবাই ভাবে গেইলের ক্যারিয়ার শেষ। তাকে দিয়ে কিছু হবে না। আসলে এমন তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়েই আমি দীর্ঘ পথ পার হয়ে এসেছি। এগুলো তাই এখন নতুন কিছু মনে হয় না।’

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 73 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ