খুলনার মাটি নায়িকার ঘাঁটি!

Print

ঢাকাই ছবির বেশির ভাগ নায়িকাই বৃহত্তর খুলনা অঞ্চলের। সুচন্দা-ববিতা-চম্পা থেকে শুরু করে শাবনূর-মৌসুমী-পপি-কেয়া, এমনকি হালের পরীমণি-আঁচল-পূজা চেরী—সবাই খুলনা অঞ্চলের! চলচ্চিত্রে খুলনার মেয়েরাই কেন বেশি? উত্তর খুঁজেছেন সুদীপ কুমার দীপ

ষাট-সত্তর-আশি ও নব্বই—এই চারটি দশক চলচ্চিত্রপ্রেমীদের মাতিয়ে রেখেছিলেন তিন বোন সুচন্দা, ববিতা ও চম্পা। ববিতা তো শুধু দেশে নন, সত্যজিত্ রায়ের ‘অশনি সংকেত’ করে পেয়েছেন আন্তর্জাতিক খ্যাতি। তিন বোনের এই সফলতার নেপথ্য কারণ শোনালেন ববিতা, ‘আমরা খুব রক্ষণশীল পরিবারে বড় হয়েছি। তবে সংস্কৃতি আর শিক্ষা-দীক্ষার দিক থেকে বাবা-চাচারা, বিশেষ করে আমার আম্মা ও চাচিরা ছিলেন উদার। আমার ভাবি সব সময় বোরকা ও হিজাব পরেন, পাশাপাশি ভার্সিটিতেও পড়াশোনা করেছেন। ছোটবেলায় আমাদের কখনো বলা হয়নি যে নাটক বা সিনেমায় অভিনয় করতে হবে। একটু একটু করে যখন বড় হলাম, দেখলাম বাসায় সকালবেলা গানের শিক্ষক, বিকেলবেলায় নাচের শিক্ষক আর সন্ধ্যায় আসেন ছবি আঁকার শিক্ষক। মনে আছে, একদিন সকালে ঘুম থেকে উঠতে দেরি করেছি। আম্মা কয়েকবার ডাকার পরও যখন উঠিনি তখন চিকন একটা বেত নিয়ে আমাকে মারতে শুরু করলেন। কারণ কী! পরে জানলাম, বাসায় গানের শিক্ষক এসেছেন। আমার জন্য অপেক্ষা করছেন। পরিষ্কার করে বলতে গেলে আমাদের এলাকার মানুষ খুব সংস্কৃতিমনা। একটু খোঁজ নিলে দেখা যাবে, এই অঞ্চলের মানুষ যত গরিবই হোক, বাসায় একটা হারমোনিয়াম বা ঢোল-তবলা আছে। স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় খেলাধুলার পাশাপাশি একটা নাটক বা নাটিকা মঞ্চায়ন করা হয়। ছোটবেলাতেই এই অঞ্চলের মেয়েরা গান-বাজনা-অভিনয় শিখে ফেলে।’

ববিতার এই কথার সঙ্গে একমত পরিচালক সোহানুর রহমান সোহান। তাঁর হাত ধরে চলচ্চিত্রে এসেছিলেন নায়িকা মৌসুমী; যিনি নব্বইয়ের দশকে দিয়েছেন একের পর এক হিট ছবি। সোহান আরো যোগ করেন, ‘নায়িকাদের যেমন চেহারা বা শারীরিক গঠন পছন্দ করে দর্শক, সেটা খুলনার মেয়েদের সবচেয়ে বেশি আছে। খুলনা থেকে আজ পর্যন্ত যত মেয়ে চলচ্চিত্রে এসেছে, অভিনয় প্রতিভার পাশাপাশি প্রত্যেকেরই চেহারা সুন্দর। কেউ কেউ বিখ্যাত তার হাসির জন্য, কেউ আবার চঞ্চলতায়।’ সোহানের মতে ভৌগোলিক কারণেই এখানকার মেয়েরা শুধু নয়, ছেলেরাও চলচ্চিত্রের জন্য পারফেক্ট। আমিন খান, শাকিল খান থেকে শুরু করে রিয়াজরাও খুলনার। এই এলাকা সমুদ্র উপকূলে হওয়ায় ছোটবেলা থেকেই ছেলে-মেয়েরা একটু ডানপিটে স্বভাবের হয়। যেকোনো পরিবেশে খাপ খাইয়ে নিতে পারে। ভারতের তামিল-তেলেগুর নায়ক-নায়িকারাও অনেক ন্যাচরাল। কারণ তারাও বেড়ে উঠেছে সমুদ্র উপকূলে। তাদের অভিনয় দেখলে বোঝা যায় সেটা।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 104 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ