আইনি পথ ফিকে হচ্ছে বিএনপির কাছেও

Print

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিনে মুক্তির আর কোনো আশা দেখছেন না বিএনপির তিনজন আইনজীবী। তাঁরা মনে করছেন, আদালত জামিন আবেদন খারিজ করে যে পর্যবেক্ষণ দিয়েছেন তাতে খালেদা জিয়ার কারাবাস দীর্ঘই হবে। এই আদেশের ফলে বিএনপির চেয়ারপারসনকে কারা তত্ত্বাবধানে দীর্ঘসময় হাসপাতালেই থাকতে হবে সেটাই প্রতীয়মান হয়েছে। আইনজীবীরা বলছেন, আপিল বিভাগে জামিন আবেদন খারিজ হওয়ায় অন্য আরেকটি মামলায়ও জামিনের পথ আটকে গেল।

বৃহস্পতিবার আপিল বিভাগ জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন খারিজ করে দেন। এই মামলায় তাঁর সাত বছরের সাজা হয়েছে। এ ছাড়া আরও একটি মামলা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় তাঁর ১০ বছরের সাজা হয়েছে। এ দুটি মামলা ছাড়া বিএনপির চেয়ারপারসনের বিরুদ্ধে হওয়া অপর ৩৪টি মামলায় ইতিমধ্যে জামিন হয়েছে। বিএনপি নেতাদের আশা ছিল, চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় জামিন পেলে অন্য মামলাটিতে খালেদা জিয়া জামিন পাবেন। জামিন আটকে যাওয়ায় এবং আদালত খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসা দিতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে আদালত নির্দেশ দেওয়ায় শিগগির দলীয় চেয়ারপারসনের মুক্তির সম্ভাবনা দেখছেন না।

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাবন্দী আছেন। খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা আদালতকে বলেছেন, খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসা দরকার। মানবিক কারণে আমরা খালেদা জিয়ার জামিন চাইছি। তাঁর অবস্থা এমন যে তিনি পঙ্গু অবস্থায় চলে গেছেন। হয়তো ছয় মাস পর তাঁর অবস্থা আরও খারাপ হবে। আর কোথাও গিয়ে লাভ নেই। এ জন্য আমরা বারবারই আদালতের কাছে আসছি, বলছি, মানবিক কারণে খালেদা জিয়াকে জামিন দেওয়া হোক।’

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 86 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ