আমরা ভারতকে বিশ্বাস করতে চাই

Print

ভারতে কোনও বিশৃঙ্খলা দেখা দিলে তার প্রভাব আশে-পাশে পড়তে পারে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। তিনি বলেন, ‘জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) ইস্যু বাংলাদেশকে কোনোভাবেই প্রভাবিত করবে না বলে ভারত বারবার আশ্বস্ত করে। আমরা ভারতকে বিশ্বাস করতে চাই।’ বুধবার (১৮ ডিসেম্বর) বিকালে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বেইজিং ঘোষণার ২৫ বছর পূর্তি উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠান শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘যেসব অবৈধ বাংলাদেশি ভারতে আছেন, তারা নাকি আসছেন। সেটা আমরা ভারত সরকারকে জিজ্ঞাসা করেছি, তারা বলেছে, তারা কাউকে পুশ করছে না। আমরা বলেছি, আমাদের যদি কোনও নাগরিক ভারতে অবৈধভাবে থেকে থাকে, আপনারা আমাদের জানাবেন, আমরা যাচাই-বাছাই করে বাংলাদেশি হলে অবশ্যই গ্রহণ করবো। এটা তাদের জানিয়েছি।’

এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘ভারতে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় থাকুক। ভারত আমাদের প্রতিবেশী রাষ্ট্র, আমাদের সঙ্গে তাদের বড় সম্পর্ক। আমরা চাই, সারা ভারতবর্ষে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় থাকবে, কোনও ধরনের উত্তেজনা সৃষ্টি হবে না। ভারত সরকার এখনও আমাদের জানায়নি যে কতজন অবৈধভাবে আছে।’

রাজাকারের তালিকা নিয়ে চলমান বিতর্ক বাংলাদেশকে আন্তর্জাতিক ভাবমূর্তির সংকটে ফেলবে কিনা—জানতে চাইলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘রাজাকারের তালিকা আরও আগে করলে ভালো হতো। দুর্ভাগ্যবশত ১৯৭৫ সালের পরের যেসব সরকার ছিল, তারা উদ্যোগ নেয়নি। তালিকায় কিছুটা দুর্বলতা আছে। সেটা আমরা সংশোধন করবো। তবে প্রক্রিয়া যে চালু হয়েছে, এটি ভালো।’ দুর্বলতা যেগুলো আছে, সেগুলো দূর করা প্রয়োজন বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 112 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ