ঝলসে গেল গৃহবধূর মুখ, তিন পার্লার কর্মীর দণ্ড

Print

মেয়াদ উত্তীর্ণ প্রসাধনীসামগ্রী দিয়ে গ্রাহকের রূপচর্চা করার অপরাধে নোয়াখালী জেলা শহর মাইজদীর ‘রোজ বিউটি পার্লার’কে অর্থদণ্ড ও তিন পার্লার কর্মীকে কারাদণ্ড দিয়েছে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় পার্লার থেকে মেয়াদ উত্তীর্ণ ও অনুমোদনহীন প্রসাধনী জব্দ করা হয়।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে এ অভিযান পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী হাকিম রোকনুজ্জামান খান।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হচ্ছেন- পার্লারের স্বত্ত্বাধিকারী নাসিমা আক্তার, সার্ভিস কর্মী শিমু আক্তার ও সূচি।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, সন্ধ্যায় এক প্রবাসীর স্ত্রী গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে যাওয়ার জন্য শহরের নতুন বাসস্ট্যান্ড এলাকার ‘রোজ বিউটি পার্লার’-এ সাজতে যায়। পরে পার্লার কর্মীরা মেয়াদোত্তীর্ণ প্রসাধনী দিয়ে তার রূপচর্চা করে। এসময় ওই গৃহবধূ তার মুখ প্রচণ্ড জ্বলছে বলে তাদের জানায়। তখন পার্লার কর্মীরা জানায়, ‘এটা তেমন কিছু না একটু পর ঠিক হয়ে যাবে।’ পরে ওই গৃহবধূ মেকআপ তুলে ফেলে দেখে তার মুখ আগুনো পোড়ার মত ঝলসে গেছে। তিনি ভ্রাম্যমাণ আদালতে অভিযোগ করেন। পরে ওই পার্লারে অভিযান চালিয়ে ৩০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড ও তিনজনকে এক মাস করে কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী হাকিম রোকনুজ্জামান খান জানান, বিউটি পার্লারের প্রসাধনী সম্পর্কে ক্রেতা ও গ্রাহকদের সচেতন থাকতে হবে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 43 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ