তিন মাসেই নবায়ন ১০ হাজার কোটি টাকা

Print

খেলাপি ঋণ নবায়নে চাপ বাড়ছে ব্যাংকের ওপর। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ডাউন পেমেন্ট ছাড়া আবার কোনো কোনো ক্ষেত্রে নামমাত্র ডাউন পেমেন্ট দিয়ে খেলাপি ঋণ নবায়ন করা হচ্ছে। নিয়মনীতির মধ্যে না পারলেও প্রভাবশালীদের প্রভাবে ব্যাংকও বাধ্য হচ্ছে ঋণ নবায়নের।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ পরিসংখ্যান থেকে দেখা যায়, মাত্র তিন মাসে খেলাপি ঋণ নবায়ন হয়েছে ১০ হাজার কোটি টাকা। এ হিসাব গত সেপ্টেম্বর প্রান্তিকের। এর মধ্যে সর্বাধিক ঋণ নবায়ন করেছে রাষ্ট্র খাতের জনতা ব্যাংক ২ হাজার ১৮৬ কোটি টাকা, বেসরকারি খাতের ইসলামী ব্যাংক (আইবিবিএল) ২ হাজার ১৫৭ কোটি টাকা এবং এবি ব্যাংক ১ হাজার ২১৪ কোটি টাকা। বলা চলে এ তিন ব্যাংকই ঋণ নবায়ন করেছে মোট নবায়নের অর্ধেকের বেশি; অর্থাৎ ৫ হাজার ৫৫৬ কোটি টাকা। তবে ব্যাংকাররা জানিয়েছেন, ডিসেম্বর প্রান্তিকে খেলাপি ঋণ নবায়ন তিনগুণ ছেড়ে যেতে পারে।

খেলাপি ঋণ নবায়নের নীতিমালা অনুযায়ী, কেউ প্রথমবার খেলাপি ঋণ নবায়ন করতে চাইলে তাকে মোট খেলাপি ঋণের ১৫ শতাংশ অথবা মোট মেয়াদোত্তীর্ণ ঋণের ১০ শতাংশ এ দুইয়ের মধ্যে যেটি বেশি সেই পরিমাণ অর্থ এককালীন নগদে (ডাউন পেমেন্ট) পরিশোধ করে ঋণ পুনঃতফসিল করতে হবে। আবার দ্বিতীয়বার একই খেলাপি ঋণ নবায়ন করতে চাইলে এককালীন ২০ শতাংশ এবং তৃতীয়বার নবায়ন করতে চাইলে এককালীন ৩০ শতাংশ পরিশোধ করার বিধান রয়েছে। ব্যাংকাররা জানিয়েছেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের এ নীতিমালা কেউ অনুসরণ করেন না; বরং নামমাত্র ডাউন পেমেন্ট দিয়ে ঋণ নবায়ন করতে হয়। আবার প্রভাবশালী হলে ডাউন পেমেন্ট ছাড়াই ঋণ নবায়ন করতে হয়। এভাবে ব্যাংকে অনাদায়ী ঋণের পরিমাণ বেড়ে চলছে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 95 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ