বিয়ের দাবিতে ‘প্রেমিকের’ বাড়িতে অনশন

Print

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় পেঁচিবাড়ি গ্রামে কথিত প্রেমিকের বাড়িতে বিয়ের দাবি নিয়ে অনশন করছেন এক তরুণী। ওই তরুণীর অভিযোগ, ওই গ্রামের সাইকেল মিস্ত্রী শাহাজামাল শেখের কলেজ পড়ুয়া ছেলে রিপন শেখ তাকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে তালবাহানা করেছে। তাই তিনি গত চারদিন ধরে অনশন করছেন।

ওই তরুণী জানান, ৯ মাস আগে রিপনের সঙ্গে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে তার পরিচয় হয়। মোবাইল ফোনে কথাবার্তার একপর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সম্পর্ক চলাকালে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে রিপন ওই তরুণীর সঙ্গে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক করেন। এতে তরুণীটি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন। বিষয়টি জানতে পেরে রিপনের মা তাকে গর্ভপাত ঘটানোর পরামর্শ দেন। তার মায়ের কথামতো ওই তরুণী গর্ভপাত করান। পরে বিয়ের প্রসঙ্গ ওঠালে রিপনের পরিবার বিষয়টি নিয়ে তালবাহানা করতে থাকে।

এ ব্যাপারে রিপনের মা রেখা বেগম বলেন, ‘আমি এই মেয়েকে চিনি না। তাকে আমি কখনও দেখিনি। আমার ছেলের বিরুদ্ধে চক্রান্ত চলছে।’

ওই গ্রামের রুবেল আহমেদ জানান, রিপনের বিরুদ্ধে এ পর্যন্ত ১৫/২০ বার সালিশ হয়েছে। একই গ্রামের মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, রিপন মুরব্বিদের মানে না। তার চালচলন ভালো না।

স্থানীয় চোকিবাড়ী ইউপির ১নং সদস্য রুবেল আহমেদ বাবু জানান, গত শুক্রবার থেকে রিপনের বাড়িতে এক তরুণী বিয়ের দাবি নিয়ে উঠেছে। বিষয়টি জানতে পেরে খোঁজ-খবর নিয়েছি। রিপনের পরিবার আর্থিক ক্ষতিপূরণ দিতে চেয়েছিল কিন্তু মেয়েটি টাকা নিতে রাজি হননি।

চোকিবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জুলফিকার আলী ভুট্টো বলেন, ‘বিষয়টি আমি জানি। ওই তরুণীর পক্ষ থেকে অভিযোগ পেয়েছি। আশা করি, ২/১ দিনের মধ্যে বিষয়টি নিয়ে বসব।’

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 187 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ