স্ত্রীকে হাসপাতালে রেখে কলেজছাত্রীকে নিয়ে যুবলীগ নেতা উধাও

Print

বগুড়ার নন্দীগ্রামে স্ত্রীকে হাসপাতালে রেখে কলেজছাত্রীকে নিয়ে নিরুদ্দেশ হয়েছেন যুবলীগ কর্মী শাহীন আলম (৩০)। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শাহিন আলমের স্ত্রী রেহেনা বেগম (২৫) রবিবার ভোরে মারা যান।

জানা গেছে, নন্দীগ্রাম উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি শাহিন আলমের তুলাশন গ্রামের এক কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিষয়টি জানাজানি হলে শাহীন আলমের সাথে তার স্ত্রীর ঝগড়া হয়। এক পর্যায় শুক্রবার শাহীনের স্ত্রী রেহেনা বেগম বাড়িতে ডিটারজেন পাউডার পানিতে মিশিয়ে পান করে অসুস্থ হয়ে পড়েন। শাহীন আলম অসুস্থ স্ত্রীকে হাসপাতালে ভর্তি করে ওই দিনই সন্ধ্যার পর সুমি আকতারকে নিয়ে নিরুদ্দেশ হন। এ দিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রবিবার ভোরে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নূর মোহাম্মাদ জানান, শাহীনের দুইটি সন্তান রয়েছে। এরপরেও এক কলেজছাত্রীকে নিয়ে নিরুদ্দেশ হয়েছেন। তাদের খোঁজ পাওয়া যায়নি।

বগুড়ার নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ শওকত কবির জানান, এমন একটি খবর শুনেছি। কিন্তু কেউ কোন লিখিত অভিযোগ দায়ের করেনি।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 68 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ