হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে করতে গেলেন ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতা

Print

হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে করেছেন কুমিল্লার লালমাই উপজেলার বাঘমারা উত্তর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন মির্জা।

আজ বুধবার বিকেল পৌনে ৩টায় নিজের গ্রাম দুতিয়াপুর থেকে মাত্র দুই কিলোমিটার দূরে পাশের চন্ডিপুর গ্রামে বিয়ে করতে যান ওই ছাত্রলীগ নেতা।

মা ও ছোট ভাইকে সঙ্গে নিয়ে হেলিকপ্টারে চড়ে শ্বশুরবাড়িতে যান ছাত্রলীগ নেতা নাছির উদ্দিন মির্জা। সেখানে পৌঁছার পর মাত্র এক ঘণ্টার মধ্যেই বিয়ের সব আনুষ্ঠানিকতা শেষে কনেকে নিয়ে ফিরে আসেন নিজের বাড়িতে। ওই বিয়েতে বরযাত্রী ছিল প্রায় ৩০০ জন।

একজন ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতা হয়ে হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ের বিষয়টি এলাকায় বেশ আলোচনা-সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। তবে ওই ছাত্রলীগ নেতা বলছেন, এর মাধ্যমে তিনি নিজের স্বপ্ন পূরণ করেছেন।

জানা যায়, লালমাই উপজেলার দুতিয়াপুর গ্রামের আবদুল মান্নানের ছেলে ও বাঘমারা উত্তর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন মির্জা পাশের বরুড়া উপজেলার চন্ডিপুর গ্রামের আবদুল মান্নানের মেয়ে জান্নাতুল মাওয়া প্রিয়াকে বিয়ে করেছেন। দুতিয়াপুর থেকে চন্ডিপুরের দূরত্ব মাত্র দুই কিলোমিটার। কিন্তু সামান্য এ পথ পাড়ি দিতেই বর নাছির উদ্দিন মির্জা ভাড়া করেন হেলিকপ্টার।

বিয়ের অনুষ্ঠানের যাত্রী বাঘমারা উত্তর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহসভাপতি ফজলে রাব্বী বলেন, ‘শখের বশেই হেলিকপ্টারটি ভাড়া করে আনা হয়েছে। বরের বাড়ি থেকে কনের বাড়ির দূরত্ব তো অনেক কম। মাত্র এক ঘণ্টার মধ্যেই সকল আনুষ্ঠানিকতা শেষ করা হয়েছে। বর তার মা ও ভাইকে নিয়ে হেলিকপ্টারে কনের বাড়িতে গেছেন। আমরা মাইক্রো আর বাইকে গেছি।’

এ বিষয়ে সদর দক্ষিণ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আয়াত উল্লাহ জানান, ‘হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ের বিষয়টি আমি শুনেছি। ফেসবুকেও দেখিছি। তার সামর্থ্য ছিল, যার কারণে সে স্বপ্ন পূরণ করতে পেরেছে।’

সমালোচনার বিষয়ে জানতে চাইলে বাঘমারা উত্তর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন মির্জা বলেন, ‘আলোচনা-সমালোচনা তো একটু হবেই। আমার দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিল হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে করতে যাওয়ার। সেই স্বপ্ন আজ পূরণ হলো।’

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 45 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ