নাটোরে নিজের শিশুকে হত্যার চেষ্টা মায়ের!

Print
জেলা প্রতিনিধি, নাটোরঃ নাটোরের লালপুরের  আড়বাব ইউনিয়নের আকবরপুর গ্রামে হোসাইন (৫) নামে এক শিশুকে নির্যাতন করে হত্যার চেষ্টা করেছেন তার মা। হোসাইন উপজেলার নওপাড়া গ্রামের বজলুর রহমানের ছেলে।
পারিবারিক ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মায়ের সাথে আকবরপুর গ্রামে নানার বাড়ি বেড়াতে আসলে মঙ্গলবার রাতে তার মা রানু বেগম মানষিক ভারসম্য হারিয়ে শিশুটির উপর নির্যাতন শুরু করে। এসময় প্রতিবেশীরা শিশুটিকে উদ্ধার করে লালপুর উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করে। এর আগে ওইদিন বিকেলে শিশুটিকে পুকুরের পানিতে ডুবিয়ে মারার চেষ্টা করেন ওই মা।
বৃহস্পতিবার (০৯ জানুয়ারী) লালপুর হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, শিশুটির গোটা শরীরে আঘাতের চিহ্ন। তখন পর্যন্ত সে কথা বলতে পারছিলনা। পাশে বসে তার দাদী কান্না জড়িত কণ্ঠে বলেন, হোসাইনের মা এর ওপর জ্বিনের আছর রয়েছে। শুধু তার মা’ই নয় নানি খালাদেরও একই সমস্যা আছে। তারা হোসাইনের গোটা শরীর কামড়ানো, খামচানোসহ লাঠি দিয়ে পিটিয়ে পাকা দেয়ালের সাথে মাথা চেপে ধরে মেরে ফেলার চেষ্টা করেছে। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আগুনের ছেঁকা দিয়েছে।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘শিশুটিকে আগুন দিয়ে ছেঁকা, খামচানিসহ তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে প্রচুর ক্ষত রয়েছে। বর্তমানে শিশুটি শারিরীক ও মানুষিক উভয়ভাবে অসুস্থ রয়েছে।’
লালপুর থানার ওসি সেলিম রেজা বলেন,‘খবর পেয়ে বুধবার তৎক্ষনিক পুলিশ পাঠিয়ে ঘটনাস্থল থেকে শিশুটির নানা আমজাদ হোসেন ও মামা মিলন হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে শিশুটির মা মানসিক ভারসম্যহীন সে নিজেই শিশুটির ওপর এ অমানুষিক নির্যাতন চালিয়েছে।’
আপন
নাটোর
[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 153 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ