স্বাস্থ্য সেবায় নতুন মাত্রা – “হসপিটাল ফার্মেসি”

Print

 

সুস্থ্য-সুন্দর ভাবে বেঁচে থাকা প্রতিটি মানুষের মৌলিক অধিকারবেঁচেথাকার তাগিদেই আধুনিকতর সমাজব্যবস্থায় নিত্যনতুন সংযোজন হচ্ছেঅকল্পনীয় সব প্রযুক্তি, আবিষ্কার হচ্ছে জীবনকে সহজ করার বিভিন্নমূলমন্ত্রতারই হাত ধরে চিকিৎসা সেবায়ও যোগ হয়েছে অজস্র নতুননতুন ধারা

মৃত্যুর দারপ্রান্ত থেকে ফিরিয়ে আনতে প্রয়োজন যেমন সুচিকিৎসার, তেমনি ভুল চিকিৎসাও নিয়ে যেতে পারে মৃত্যুর কাছাকাছিজনবহুল দেশে প্রতিটি মানুষের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দেওয়া বর্তমানেপ্রতিটি স্বাস্থ্যকর্মীর জন্যে একটি বিরাট চ্যালেঞ্জউপরন্তু ভয়াবহ জটিলসব মরণব্যাধির আগমন স্বাস্থ্যসেবাকে করে তুলেছে বিপর্যস্তএমতাবস্থায় প্রচলিত স্বাস্থ্যসেবাকে ঢেলে সাজানো সংযোজন-অপসারণের মাধ্যমে নতুন কার্যকর মাত্রা প্রদান অত্যাবশ্যক হয়েদাড়িয়েছে

স্বাস্থ্যসেবায় রোগ নির্ণয় ওষুধ ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে চিকিৎসকেরপাশাপাশি ফার্মাসিস্ট বা ওষুধ বিশেষজ্ঞগণের সক্রিয় অংশগ্রহণ হতেপারে একটি অভাবনীয় মাইলফলক লক্ষ্য বাস্তবায়নে প্রতিটিহাসপাতাল ক্লিনিকে প্রয়োজন অভিজ্ঞ ফার্মাসিস্ট নিয়োগ করণবিশ্বের বিভিন্ন দেশে স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নে চিকিৎসকের পাশাপাশিনিয়োজিত রয়েছে অভিজ্ঞ ফার্মাসিস্টগণবাংলাদেশে উপযুক্ত জ্ঞান, প্রয়োজন উপলব্ধি বলিষ্ঠ পদক্ষেপের অভাবে ফার্মাসিস্টদেরহাসপাতালে নিয়োগ একেবারে নেই বললেই চলে

শতভাগ সুচিকিৎসা প্রদানে হাসপাতালের প্রতিটি সেক্টরেওষুধবিশেষজ্ঞগণের অংশগ্রহণ একান্ত প্রয়োজন প্রেসক্রিপশন বিহীনওষুধ ক্রয়-বিক্রয় রহিতকরন, এন্টিবায়োটিক জাতীয় ওষুধের যাচ্ছেতাইঅপ্রয়োজনীয় ব্যবহারের ক্ষতিক দিক সম্পর্কে জনমত সৃষ্টিকরণ, অপরিমিত মাত্রাতিরিক্ত ওষুধ সেবনে ওষুধের কার্যকারীতা হ্রাস/বিনষ্টহওয়া সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি, সেবাগ্রাহককে ওষুধের যথাযথ ব্যবহার, ওষুধের কোর্স পূর্ণ করণ বিষয়ক তথ্য প্রদান সহ ওষুধ গ্রহণ সম্পর্কিতগুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধিকরণেহসপিটাল ফার্মাসিস্ট এরভূমিকা অভাবনীয়

এছাড়াও হাসপাতালে অবস্থানকৃত রোগীর রোগের অবস্থা যাচাই করণ, পূর্ববর্তী রোগের ধরণ গৃহীত ওষুধ চিহ্নিতকরণ, ওষুধের প্রতি রোগীরপার্শ্বপ্রতিক্রিয়া লিপিবদ্ধকরণ, একাধিক ওষুধ সেবনের ক্ষেত্রে ড্রাগ-ড্রাগইন্টারেকশন যাচাইকরণ, ধারাবাহিক ওষুধ সেবনে রোগের মাত্রানিরীক্ষাকরণ, ভিন্ন ভিন্ন বয়স শারিরীক অবস্থা বিবেচনাকরণ সহরোগীর আর্থিক ক্রয়ক্ষমতার দিকে লক্ষ্য রেখে সর্বোচ্চ গ্রহন উপযোগী কার্যকর ওষুধ নির্বাচনে হসপিটাল ফার্মাসিস্ট এর ভূমিকা অপরিমেয়

তদুপরি হাসপাতালের নিজস্ব ফার্মেসি বিভাগে ওষুধ আমদানিকরণেরক্ষেত্রে ক্রয়খরচ ওষুধের মান যাচাই করণ অত্যাবশকীয়পাশাপাশিআমদানিকৃত বিভিন্ন ধরণের ওষুধের জন্য প্রয়োজন নির্দিষ্ট সংরক্ষণ পরিবহন ব্যবস্থাপনা েই সাথে সম্পূর্ণ প্রতিষ্ঠানে রোগীর চাহিদাঅনুযায়ী উপযুক্ত ওষুধ সময়মত পৌঁছে দেওয়া এবং প্রয়োজন অনুসারেবিভিন্ন মাত্রার পরিমাণের ওষুধ প্রস্তুত করাও উক্ত ফার্মেসি বিভাগেরঅত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কা সকল ক্ষেত্রে সুষ্ঠুভাবে মান বজায় রেখেস্বাস্থ্যসেবা প্রদানে হাসপাতাল ক্লিনিকে দক্ষ অভিজ্ঞ ফার্মাসিস্টনিয়োগ একান্ত প্রয়োজন

বাংলাদেশ সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বছরের বিভিন্ন সময়ে প্রতিনিয়তজটিল থেকে জটিলতর রোগের আবির্ভাব ঘটছে যা অল্প সময়েরব্যবধানেই পরিণত হচ্ছে মহামারিতেঅসচেতন জীবনাচরণ, অপরিকল্পিত স্বাস্থ্যসেবা অনুপযুক্ত ওষুধ ব্যবস্থাপনাই অধিকাংশক্ষেত্রে এসব মরণব্যাধির কারণ হিসেবে চিহ্নিত হয়েছেপ্রচলিতচিকিৎসা ব্যবস্থার সংস্কার সাধন, ওষুধের সতর্ক ব্যবহার নিশ্চিতকরণ সচেতনতা বৃদ্ধি সহ ফার্মাসিস্ট, চিকিৎসক এবং অন্যান্য সকলস্বাস্থ্যকর্মীদের সম্মিলিত অংশগ্রহণ ব্যতীত ভয়াবহ পরিস্থিতিমোকাবিলা অসম্ভব

 

শাহরিয়ার মোহাম্মদ সোহান

ফার্মেসি বিভাগ,

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়

shahriarmohammadshohan@gmail.com

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 75 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ