বিদেশফেরত যাত্রীদের হাতে বিশেষ সিল

Print
বিদেশ থেকে আসা যাত্রীদের হাতে বিশেষ সিল মারা হচ্ছে। ছবি: সংগৃহীতকরোনাভাইরাস ঠেকাতে বিদেশফেরত সব যাত্রীর হাতে সিল মারা হচ্ছে। আজ শুক্রবার থেকে ঢাকার হজরত শাহজালাল, সিলেটের এম এ জি ওসমানী ও চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এবং দেশের স্থলবন্দরগুলোয় ইমিগ্রেশন পুলিশের পক্ষ থেকে এই সিল মারার কাজ করা হচ্ছে।

এই সিলে বিদেশফেরত যাত্রীকে কত দিন হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে, সেই তারিখ উল্লেখ রয়েছে। সিলের প্রথম অংশে ইংরেজিতে লেখা রয়েছে ‌‘প্রাউড টু প্রোটেক্ট বাংলাদেশ’। এরপর ‘হোম কোয়ারেন্টিন আনটিল’ লিখে কোয়ারেন্টিনে থাকার সব শেষ তারিখ উল্লেখ করা রয়েছে।

ইমিগ্রেশন পুলিশের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা বলেন, ১৬ মার্চ মন্ত্রিপরিষদের সবশেষ বৈঠকে বিদেশফেরত সব যাত্রীর বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এরপর গতকাল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক জাবেদ পাটোয়ারির সভাপতিত্বে এক বৈঠকে সিল মারার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এই সিদ্ধান্তের পর শুক্রবার থেকে এটি কার্যকর হয়েছে। কারণ, সিল মারা হলে কেউ হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার সিদ্ধান্ত অমান্য করতে পারবেন না।

তা ছাড়া করোনাভাইরাস প্রতিরোধে এ ধরনের সিল দেওয়ার কাজ বহু দেশেই করা হচ্ছে। এই সিলের কালি অমোচনীয়। এই সিল থাকলে কেউ বাড়ি ফিরে গেলেও সহজে বাইরে বের হতে পারবেন না। আর বাইরে গেলেও তাঁকে সহজে শনাক্ত করা যাবে। বাংলাদেশে প্রবেশের যত পথ রয়েছে সব জায়গায় ইমিগ্রেশন পুলিশের পক্ষ থেকে সিলটি বসিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 91 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ