ভারতীয় গণমাধ্যমের তথ্য: বঙ্গবন্ধুর খুনি মোসলেউদ্দিন আটক

Print

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আরেক খুনি রিসালদার মোসলেউদ্দিনকে ভারতের উত্তর চব্বিশ পরগনা থেকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করতে পারেনি পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ। ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের পক্ষ থেকে যোগাযোগ করা হলে তারা জানায়, এ ধরনের কিছু তথ্য তারা জানতে পারলেও এ ঘটনা নিশ্চিত করতে পারবেন রাজ্য পুলিশের মহানির্দেশক। তবে তার সাথে যোগাযোগ করা করার চেষ্টা হলেও কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। 

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, ভারতীয় গোয়েন্দাদের সহযোগিতায় রিসালদার মোসলেউদ্দিনকে আটক করা হয়ে থাকতে পারে। প্রতিবেদনে বলা হয়, আব্দুল মাজেদের গ্রেফতারের পর তার কাছ থেকে পাওয়া তথ্য থেকে মোসলেউদ্দিনের খোঁজ পায় গোয়েন্দারা। পরিচয় লুকিয়ে বঙ্গবন্ধুর এ খুনিও দীর্ঘদিন ধরে পশ্চিমবঙ্গে অবস্থান করছিলেন, এমন দাবি বাংলাদেশের গোয়েন্দা সূত্রের।

‘মুজিবের আর এক খুনিও কি এই বঙ্গে?’ শিরোনামে আনন্দবাজারে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘ভারতের গোয়েন্দাদের একটি সূত্রের অবশ্য দাবি, লকডাউনের সময় এ দেশ থেকে মোসলেউদ্দিনকে গ্রেফতার করে নিয়ে যাওয়ায় সমস্যা হতে পারে বলে ঢাকা বিষয়টি ভারতের গোয়েন্দাদের জানায়। ভারতীয় গোয়েন্দারা এই খুনিকে কার্যত তাড়িয়ে সীমান্তের কোনো একটি অরক্ষিত এলাকা দিয়ে বাংলাদেশের গোয়েন্দাদের হাতে তুলে দিয়েছেন। তবে সরকারিভাবে কিছুই স্বীকার করা হয়নি। ১৯৭৫-এর ১৫ অগস্ট মুজিবের বাড়িতে হানা দেয়া দলটির সামনের সারিতে ছিল মোসলেউদ্দিন। অনেকের দাবি, মোসলেউদ্দিনই গুলি করে হত্যা করেছিল মুজিবকে।’

উল্লেখ্য, গোয়েন্দারা জানিয়েছে, উত্তর ২৪ পরগনার একটি ছোট শহরে ইউনানী চিকিৎসক সেজে ভাড়া থাকছিল মোসলেউদ্দিন। তবে বাংলাদেশ বা ভারতের কোনো দায়িত্বশীল সূত্রই এখন পর্যন্ত রিসালদার মোসলেউদ্দিনের বর্তমান অবস্থান বা গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করছে না।

এর আগে গত ৭ এপ্রিল বঙ্গবন্ধুর আরেক খুনি ক্যাপ্টেন (বরখাস্ত) আবদুল মাজেদকে গভীর রাতে রাজধানীর গাবতলী এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। মাজেদও দীর্ঘদিন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় আত্মগোপনে ছিলেন। ১২ এপ্রিল শনিবার রাত ১২টা ১ মিনিটে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে তার ফাঁসি কার্যকর করা হয়।
[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 48 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ