লোকসানে ঈদগড়ের সবজি চাষিরা

Print

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঈদগাঁও, ককসবাজার

ঈদগড়ে এবার আবহাওয়া অনুকূল ও উর্বর মাটি হওয়ায় সবজির বাম্পার ফলন হয়েছে। দিগন্ত জোড়া সবজি ক্ষেত। যে দিকে চোখ যায় সবজি আর সবজি। তবে সবজির বাম্পার ফলন হলেও করোনাভাইরাসের কারণে দৃশ্যপট পাল্টে গেছে। ক্রেতা নেই, বাজার বন্ধ, আসে না ব্যাপারিও। পাইকার না আসায় বড় ধরনের লোকসানের মুখে পড়েছেন চাষিরা। লোকসানে পড়ে ঋণের বোঝা পরিশোধ নিয়ে চিন্তিত তারা।

এখন দেশে করোনা পরিস্থিতিতে বাজারগুলোতে ক্রেতা না থাকায় অনেকটাই বিপাকে পড়েছেন এ অঞ্চলের চাষিরা। ক্রেতার অভাবে দরপতন হয়েছে পাইকারি সবজির বাজারগুলোতে। গণপরিবহণ সংকটের কারণে আশপাশের এলাকা থেকে পাইকার আসছে না সবজির বাজারে। আর তাই বাজারে সবজি বিক্রি করতে গিয়ে রিকশা ও ভ্যানের খরচ ওঠাতে পারছেন না চাষিরা। স্থানীয়ভাবে আসা ক্রেতাদের কাছে স্বল্পমূল্যে কিছু সবজি বিক্রি করা গেলেও ন্যায্যমূল্য পাওয়া যাচ্ছে না। ফলে উৎপাদিত সবজি বাজারে নিতে রিকশা বা ভ্যান ভাড়াও পাচ্ছেন না কৃষকরা।
উপজেলার ঈদগড় ইউনিয়নের বড়বিল গ্রামের কৃষক জহির জানান, জমিতে বিভিন্ন রকমের সবজির চাষ করেছেন। বতর্মানে সবজির দাম এত কম যা উৎপাদিত খরচ ও শ্রমিক খরচ উঠাতে হিমশিম খেতে হয়। মৌসুমের শুরুতেই করোনা আতংকে পরিবহণ চলাচল বন্ধ থাকায় সবজি বাজারজাত করতে না পেরে ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হবে। ঈদগড় ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ সভাপতি হাজী নুরুল আলম বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে আশানুরূপ দাম না পাওয়ায় এবার লোকসানে পড়ে ঋণের বোঝা টানতে হবে কৃষকদের। তাই তিনি জনপ্রতিনিধিদের এসব চাষির কাছ থেকে সবজি কিনে খাদ্য সামগ্রীর সঙ্গে যোগ করে বিতরণ করার আহ্বান জানান।

[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 61 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ