কালিগঙ্গায় জি আই বস্তা ফেলে বাঁধ নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করেছেন উপজেলা চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন ঝিলু।

Print
নবাবগঞ্জের পূর্ব পাতিলঝাপ কালিগঙ্গা নদীর পানির স্রোতে নদীর পাড়ের বাড়িঘর ভাঙ্গন রোধে ভাঙ্গন রোধীয় (জি আই বস্তা ফেলে বাঁধ নির্মাণ) কাজের শুভ উদ্বোধন করলেন
নবাবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন আহমেদ ঝিলু।
উদ্বোধনীতে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সাবেক সদস্য ও নবাবগঞ্জ উপজেলা বিআরডিবির চেয়ারম্যান দেওয়ান আওলাদ হোসেন,
নবাবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক এর সাবেক সম্পাদক আব্দুল আউয়াল, পাতিল ঝাপ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ হাবিবুর রহমান, শোল্লা ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি দেওয়ান মোহাম্মদ রুহুল, মোঃ ফারুক হোসেন, ইউসুফ হারুন টিপু, একেএম মনিরুজ্জামান তুহিন সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
পাতিলঝাপ বাসী জানান, আমাদের  কাছে অবাক হওয়ার মতোই বিষয়। এতো দ্রুত কোনো সরকারি কাজ হতে পারে ভাবাই মুশকিল ছিল।
নবাবগঞ্জ থানাধীন পাতিলঝাপ গ্রাম নদী ভাঙ্গনের কবলে পড়ে প্রায় নিশ্চিহ্ন হওয়ার উপক্রম হয়েছিল।
এর আগেও নদীর পাড় ব্লক দিয়ে বাঁধাই করার পরেও প্রোপার প্ল্যানিং না থাকার কারনে আবারও তা ভেঙ্গে পড়ে।
এবার নদী ভাঙ্গন এতোটাই ভয়ংকর রূপ নিচ্ছে যে কোনো সময় পাতিলঝাপ নামক গ্রামটি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যেতে পারে।
এমন ভয়ংকর একটা অবস্থা যখন চলছিল, তখন মহান আল্লাহ তায়ালা আমাদের আশার আলো দেখিয়েছেন কতিপয় মানব দরদীদের মাধ্যমে।
২ তারিখে আমাদের বড় ভাই ফারুক হোসেন যোগাযোগ করেন সম্মানিত উপজেলা চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন ঝিলু ভাই এবং বি আর ডি বির সম্মানিত চেয়ারম্যান আওলাদ হোসেন ভাইয়ের সাথে।
একই সাথে আমরা যোগাযোগ করি সম্মানিত উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান তাবির হোসেন খান পাভেল ভাইয়ের সাথে।
৫ তারিখে ফারুক ভাইয়ের নেতৃত্বে আমরা নবাবগঞ্জ উপজেলা পরিষদে যাই এবং চেয়ারম্যান সাহেব কে আমাদের এলাকা পরিদর্শনের জন্য দাওয়াত দেই। তিনি দাওয়াত গ্রহণ করেন।
সব চাইতে আশ্চর্যজনক বিষয়, তিনি আমাদের কোনো ডেট দিলেন না।
বললেন, এখন আমার সাদাপুর একটা প্রোগ্রাম আছে সেটা শেষ করেই তোমাদের এলাকায় যাবো।
অতঃপর তিনি এবং পাভেল ভাই সাদাপুরের প্রোগ্রাম শেষ করে লাঞ্চ না করেই চলে আসলেন আমাদের জনদুর্ভোগ দেখতে।
সার্বিক পরিস্থিতি দেখে তিনি দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিলেন।
তারপর উপজেলা পরিষদ থেকে বিষয়টি মাননীয় এমপি সালমান এফ রহমান এমপি মহোদয় কে জানান উপজেলা চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন আহমেদ ঝিলু।
এমপি মহোদয়ের নির্দেশে ৫ দিনের মধ্যেই পানি উন্নয়ন বোর্ডের সম্মানিত ইঞ্জিনিয়ার সাহেব ঘটনাস্থল এসে পরিদর্শন পূর্বক জরিপ করে যান এবং পরের দিন উক্ত প্রজেক্টটি ঠিকাদারের কাছে হস্তান্তর করেন।
এছাড়া কয়েকদিন আগে শোল্লা ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান ভূঁইয়া কিসমত চেয়ারম্যান
তিনি সালমান এফ রহমান এমপির কাছে পাতিলঝাপ এর ভাঙ্গন নিয়ে কথা বলেছিলেন এবং তার আমলে পাতিলঝাপের নদী ভাঙ্গনে ব্যাপক কাজ হয়েছে বলে অনেকে জানান।
তাছাড়া দুইদিন আগে নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার এইচএম সালাউদ্দীন মনজু এবং শোল্লা ইউপি চেয়ারম্যান ভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেছেন।
আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করে বলেন আলহামদুলিল্লাহ নদীর পাড় বাঁধাইয়ের সমস্ত কাঁচামাল চলে এসেছে। আজ তা উদ্বোধন হলো।
আমরা ধন্যবাদ দিতে চাই ঢাকা-১ আসনের এমপি সালমান এফ রহমান এমপি ও উপজেলা চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন আহমেদ ঝিলু, ভাইস চেয়ারম্যান পাভেল কে।
তাদের নেতৃত্বেই নবাবগঞ্জ এবং দোহার উপজেলা একটি টেকসই উন্নয়নের দিকে যাচ্ছে।
অতঃপর আমরা কৃতজ্ঞতা জানাই নাসির উদ্দিন ঝিলু ভাই এবং তাবির হোসেন খান পাভেল ভাইয়ের প্রতি।
তাদের পৃষ্ঠপোষকতায় কালিগঙ্গা নদীর পাড় বাঁধাইয়ের কাজ দ্রুত গতিতে এগুচ্ছে।
পরিশেষে ধন্যবাদ জানাচ্ছি তাদের যারা নেপথ্যে থেকে আমাদের এই বাঁধ রক্ষায় সহযোগিতা করেছেন।
[ প্রিয় পাঠক, আপনিও বিডিসারাদিন24 ডট কম অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, রান্নার রেসিপি, ফ্যাশন-রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন- bdsaradin@gmail.com-এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে। নারীকন্ঠ এবং মত-দ্বিমত বিভাগে প্রকাশিত লেখার বিষয়, মতামত, মন্তব্য লেখকের একান্ত নিজস্ব। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে  bdsaradin24.com আইনগত বা অন্য কোনো ধরণের দায় গ্রহণ করে না। ]

প্রতি মুহুর্তের সর্বশেষ খবর পেতে এখানে ক্লিক করে আমাদের ফেইসবুক পেইজে লাইক দিন

(লেখাটি পড়া হয়েছে 79 বার)


Print
এই পাতার আরও সংবাদ